প্রচ্ছদ

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা
অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের শেষ ঠিকানা শেখ হাসিনা

০৪ মে ২০১৯, ১৫:০৮

sylnewsbd.com

সিলনিউজ ডেস্ক :; সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘বিবিসি ইমপ্যাক্টে দেশের খ্রিস্টান সম্প্রদায় নিপীড়নের শিকার এমন বিভ্রান্তিকর তথ্য বাংলাদেশসহ এই ভূখণ্ডের ভবিষ্যতের জন্য এক অশনিসংকেত। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের শেষ ঠিকানা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই চেতনাকে ধারণ করে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। বিবিসিকে এ ধরনের উসকানিমূলক ও সংবেদনশীল বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিতে হবে।’

গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নিয়ে বিদেশি গণমাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্যের প্রতিবাদে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

অধ্যাপক ড. আবদুর রশিদ বলেন, ‘ধর্মের মূল শিক্ষা হচ্ছে ভালোবাসা। তাই যুগে যুগে এই অঞ্চলের মানুষ সম্প্রীতির সঙ্গে বসবাস করে আসছে। আমাদের মধ্যে কোনো মৌলিক বিভাজন নেই।’ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসুদ বলেন, ‘মানুষ মানুষের জন্য। যখন মানুষ একজন আরেকজনকে ভালোবাসে, আসলে তারাই মানুষ। আর যারা হিংসাত্মক, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করছে, তারা কখনো মানুষ হতে পারে না, তারা পশুর চেয়েও অধম।’

খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি উইলিয়াম বলেন, ‘পৃথিবীতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তিপূর্ণ দেশের মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশ। অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশের খ্রিস্টান সম্প্রদায় শান্তিতে বসবাস করছে।’ হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি সুব্রত পাল বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং তার কারণেই বাংলাদেশের সকল সম্প্রদায়ের লোক ভালো রয়েছে। যারা এসব অসত্য তথ্য প্রচার করছে তাদের উদ্দেশ্য ভালো না।’

সর্বাধিক ক্লিক