প্রচ্ছদ

আতঙ্ক কাটিয়ে আবারও শীর্ষে লিভারপুল

১৯ মার্চ ২০১৯, ০০:০৩

sylnewsbd.com
মিলনারের ওপর ভর করেই গতকাল জিতেছে লিভারপুল। ছবি: সংগৃহিত।
খেলা ডেস্ক :: ম্যাচের আগে সাবেক লিভারপুল উইঙ্গার ও বর্তমানে ফুলহামে খেলা ডাচ উইঙ্গার রায়ান বাবেল বলেছিলেন, লিভারপুলের তারকা ভার্জিল ফন ডাইককে বোকা বানিয়ে কীভাবে গোল করা যায়, তিনি জানেন। ম্যাচেও সেটির প্রতিফলন দেখা গেল। কিন্তু মাত্র একটা গোল যথেষ্ট ছিল না লিভারপুলকে হারানোর জন্য। ফলে ২-১ গোলের জয় নিয়ে ম্যানচেস্টার সিটিকে টপকে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে গেছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। তবে জয়টা খুব সহজ ছিল না।

ম্যাচের শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ শাণিয়ে গেলেও ফল পাচ্ছিলেন না মোহাম্মদ সালাহ-সাদিও মানে-রবার্তো ফিরমিনোরা। ওদিকে আক্রমণভাগের মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণে সুবিধা নিতে পারেনি ফুলহামও। ম্যাচের ২৬ মিনিটে সেনেগালের উইঙ্গার সাদিও মানে ও ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনোর দুর্দান্ত রসায়নের ফসল ঘরে তোলে লিভারপুল, মানের গোলে এগিয়ে যায় তারা। এক গোল দিয়ে একটু যেন ঝিমিয়ে পড়ে লাল বাহিনী। কিন্তু মাঝে মাঝেই ফুলহাম বুঝিয়ে দিচ্ছিল, সুযোগ পেলে অঘটন ঘটাতে প্রস্তুত তারাও। দলের সাবেক উইঙ্গার রায়ান বাবেল বেশ যন্ত্রণা দিচ্ছিলেন বাম প্রান্তে। কিন্তু ডাচ ডিফেন্ডার ভার্জিল ফন ডাইক ও ব্রাজিলের গোলরক্ষক অ্যালিসনের কল্যাণে কোনো অঘটন ঘটেনি প্রথমার্ধে।

কিন্তু ঝামেলা বাঁধে দ্বিতীয়ার্ধে। পুরো ম্যাচ জুড়েই লিভারপুলকে চিন্তার খোরাক যুগিয়ে যাওয়া তাদের সাবেক উইঙ্গার রায়ান বাবেল গোল করে ফুলহামকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনেন। ফন ডাইক ও অ্যালিসনের ক্ষণিকের ভুল বোঝাবুঝিতে পাওয়া গোলকে পুঁজি করে নিজেদের মাঠে এক পয়েন্ট জোগাড় করার স্বপ্নে তখন ফুলহাম বিভোর। কিন্তু দলের পোড় খাওয়া যোদ্ধা জেমস মিলনার সেটা হতে দেবেন কেন? ডি-বক্সের মধ্যে খামোকা সাদিও মানের শার্ট টেনে ধরার মাশুল হিসেবে লিভারপুলকে পেনাল্টি দিয়ে বসে ফুলহাম। সেই পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে আবারও এগিয়ে দেন মিলনার। সেই গোল আর শোধা করতে পারেনি লন্ডনের সাদা দলটা।

এই জয়ের ফলে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে লিভারপুল। দুই পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে সিটি। তবে সিটি যদি নিজেদের পরের ম্যাচে জিতে যায়, তবে আবারও লিভারপুলকে হটিয়ে শীর্ষস্থানে উঠবে তারাই।

সর্বাধিক ক্লিক