প্রচ্ছদ

এইডস (এইচআইভি) মুক্ত হলেন ব্রিটিশ রোগী

০৬ মার্চ ২০১৯, ০১:৫৯

sylnewsbd.com

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এইডস ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে চিকিৎসকেরা সাফল্য পেয়েছেন বলে দাবি করা হয়েছে। অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এইচআইভি-আক্রান্ত এক রোগীর দেহ এইডস ভাইরাসমুক্ত করা গেছে বলে দাবি করছে চিকিৎসকেরা। চিকিৎসকরা বলছে চিকিৎসাবিজ্ঞানের এই সাফল্য সুখবর এনে দিয়েছে বিশ্ববাসীকে। চিকিৎসাবিজ্ঞানের এ সাফল্য নেচার সাময়িকীতে প্রকাশিত এক নিবন্ধে জানানো হয়েছে।

খবরে বলা হয়, লন্ডনবাসী ওই রোগী প্রথমে ক্যান্সারের জন্য চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরবর্তীতে বিগত ১৮ মাস ধরে এইচআইভিতে উপশম করতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বর্তমানে তিনি কোন ওষুধ নিচ্ছেন না।

গবেষকরা বলছেন, ওই রোগী এইচআইভি মুক্ত হয়েছেন এমনটা এখনো বলা যাচ্ছে না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই পদ্ধতি এইচআইভি আক্রান্ত সুস্থ মানুষদের জন্য বাস্তবসম্মত নয় তবে এই পদ্ধতি অনুসরণ করে সম্ভবত ভবিষ্যতে এইচআইভির প্রতিকার পাওয়া যাবে।

সাময়িকীতে লন্ডনবাসী ওই পুরুষ রোগীর নাম প্রকাশ করা হয়নি। তবে বলা হয়েছে, ২০০৩ সালে তার শরীরে এইচআইভি ভাইরাস ও ২০১২ সালে হজকিন লিম্ফোমা ধরা পড়ে।

বেশির ভাগ বিশেষজ্ঞের মতে, এ ধরনের চিকিৎসাপদ্ধতি সব এইডস রোগীর জন্য সুবিধাজনক হবে না। এটা খুবই ব্যয়বহুল, জটিল ও ঝুঁকিপূর্ণ। তবে এই পদক্ষেপ আশার আলো জাগিয়েছে বলে মনে করছেন তাঁরা।

অস্ট্রেলিয়ার ডোহারটি ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ এবং আন্তর্জাতিক এইডস সোসাইটির সহসভাপতি শ্যারন লেউইনের মতে, লন্ডনের ঘটনা এইডসবিষয়ক গবেষণায় নতুন পথের সন্ধান দিচ্ছে। তিনি বলেন, এইচআইভির চিকিৎসা আবিষ্কৃত হয়নি। তবে এ উদ্যোগ একদিন এই ভাইরাস নির্মূলে সহায়ক হবে বলে আশা করা যায়।

বিশ্বে এখন ৩ কোটি ৭০ লাখ হিউম্যান ইমিউনো ডিফিসিয়েন্সি ভাইরাসে (এইচআইভি) আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা। এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনেও উঠে এসেছে যুক্তরাজ্যে এইচআইভি-আক্রান্ত একজন রোগীকে এইডস ভাইরাসমুক্ত করতে পারার খবর। এ নিয়ে দ্বিতীয় কোনো ব্যক্তির ক্ষেত্রে চিকিৎসকেরা এ সাফল্য পেলেন।

সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    8
    Shares

সর্বাধিক ক্লিক