প্রচ্ছদ

‘এই ধোনি তো ২০ বছরের ধোনির মতো খেলবে না’

১০ জুলাই ২০১৯, ২২:৪৬

sylnewsbd.com
মহেন্দ্র সিং ধোনি। ছবি : সংগৃহিত

খেলা ডেস্ক :: বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৯২ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকেই ছিটকে গিয়েছিল ভারত। সেই অস্থা থেকে দলকে খেলায় ফিরিয়ে জয়ের স্বপ্ন দেখান মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রবিন্দ্র জাদেজা।

কিন্তু ধোনি-জাদেজার অসাধারণ লড়াইয়ের পরও পরাজয় এড়াতে পারেনি ভারত। ২৪০ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ১৮ রানে হেরে যায় দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। দলের পরাজয়ের পরই শুরু হয় ধোনির ব্যাটিং নিয়ে সমালোচনা।

সমালোচকদের অনেকেই বলছেন ধোনি স্লো ব্যাটিং করেন। তবে কোন পরিস্থিতিতে, কেনো ধোনি স্লো ব্যাটিং করেন, সেসব নিয়ে কোনও রকম পর্যালোচনা না করেই অনেকে ধোনির কঠোর সমালোচনায় মেতেছেন। সমালোচকদের দাবি রবিন্দ্র জাদেজা সর্বোচ্চ দিয়ে ব্যাটিং করে গেলেও সেভাবে লড়াই করেননি ধোনি। তিনি উইকেট ধরে রেখেই খেলেছেন।

ধোনির এমন সমালোচনা নিয়ে ভারতের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক অধিনায়ক কপিল দেব বলেন, ধোনির সমালোচনা করার কোনও মানে আমি খুঁজে পাই না। এটা সব কিংবদন্তিদের সঙ্গেই অবশ্য হয়। অকারণে সমালোনা শুনতে হয়। ধোনিকেও হচ্ছে। এটা মাথায় রাখতে হবে। এখনকার ধোনি ২০ বছর বয়সী ধোনির মতো নিশ্চয়ই খেলবে না।

১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের সাবেক অধিনায়ক কপিল দেব আরও বলেন, বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হয়তো জীবনের শেষ ইনিংস খেলে ফেললেন ধোনি। আর এটাই যদি তার কেরিয়ারের শেষ ইনিংস হয় তাহলে ধোনির কিন্তু শেষ ভালো হল। জীবনের শেষ ইনিংসে ৭২ বলে ৫০ রান করলেন ধোনি। আর এমন ম্যাচে ধোনির এই হাফসেঞ্চুরি যে দলের জন্যও কতটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল, তা আর বলে দেওয়ার অপেক্ষা রাখে না।

কপিল দেব আরও বলেন, ধোনি একটানা ভাল পারফর্ম করে যাচ্ছে। সব থেকে বড় কথা, ও দলের স্বার্থে খেলছে। হয়তো ও অনেক ক্রিকেটপ্রেমীর প্রত্যাশা পূরণ করতে পারছে না। কিন্তু আমাদের তো প্রত্যাশার শেষ নেই। সেই প্রত্যাশা পূরণ না হলেই আমরা সমালোচনা শুরু করে দিই। দলের জন্য ও একজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। সব থেকে বড় কথা, ও দলের থিঙ্কট্যাঙ্ক।

তিনি আরও বলেন, ক্যাপ্টেন হিসাবে বিরাট কোহলি আগ্রাসী মনোভাবের। সেখানে দলে ধোনির মতো ঠান্ডা মাথার একজনের খুব প্রয়োজন। এটাও আমাদের বুঝতে হবে। আর এখনকার ধোনি তো আর ২০ বা ২৩ বছরের ধোনির মতো খেলবে না!

সর্বাধিক ক্লিক