প্রচ্ছদ

ছাতকে সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহন, অতঃপর প্রেমিক জুঁটির শুভ বিয়ে

০৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:৩১

329

 

ছাতক প্রতিনিধি: ছাতকে সনাতনধর্ম ত্যাগ করে পবিএ কালেমা পাঠ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে তার প্রেমিকা খাদিজা খাতুনকে বিয়ে করেছে আব্দুল্লাহ খাঁ।
জানা গেছে,কৈতক ২০ শয্যা হাসপাতালের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন কর্মী প্রদীপ বাল্মিকী’র ১ম পুত্র মিলন বাল্মিকী গত ০১-১১-২০১৮ ইং সিরিয়াল নং-৭১৯ হলফনামা মুলে সুনামগঞ্জ নোটারী পাবলিক মাধ্যমে ধর্মান্তরিত হয়েছে।বর্তমানে
তার মুসলিম নাম আব্দুল্লাহ খাঁ।তার জন্মতারিখ ২৮-০২-১৯৯২ ইং।তার স্হায়ী ঠিকানা সাং-উত্তম লাল কলোনী,সুনামগঞ্জ পৌরসভা।
এ ব্যাপারে আব্দুল্লাহ খাঁ’র সাথে কথা হলে সে জানায় আমি দীর্ঘদিন যাবত মুসলিম বন্ধু -বান্ধব ও সহকর্মীদের সাথে চলাফেরা করিয়া এবং তাহাদের সাথে উঠাবসা করা অবস্হায় তাহাদের ধর্ম অর্থাৎ ইসলাম ধর্মের নিয়মনীতি ও আচার-অনুষ্ঠান বিশেষত শেষ নবী হযরত মোহাম্মদ মোস্তফা(সাঃ)’র জীবন বৃত্তান্ত এবং তার দ্বারা প্রচারিত ধর্ম ইসলাম সম্পর্কে অনেক কিছু জেনেশুনে আমার বিশ্বাস জন্মিয়াছে যে,
ইসলাম ধর্ম একটি সঠিক ধর্ম এবং পরকালের সঠিক রাস্তা।তাই আমি ইসলাম ধর্মের প্রতি আকৃষ্ঠ হইয়া আমার পূর্ব পুরুষদের সনাতন ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করার সিদ্ধান্ত নেই এবং আমি বিগত কয়েক মাস পূর্বে পাক পবিত্র হয়ে মৌলানা সাহেবের মাধ্যমে পবিত্র কালেমা পাঠ করিয়া এবং উহার মর্মসম্মুখ অন্তরে বিশ্বাস স্হাপন করিয়া উপস্হিত সাক্ষীগনের সম্মুখে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করিয়াছি এবং আমার পূর্বের নাম পরিবর্তন করে বর্তমান মুসলিম নাম আব্দুল্লাহ খাঁ রাখিয়াছি।বর্তমানে আমি একজন মুসলিম লোক হিসেবে সর্বক্ষেত্রে, সর্বাবস্হায় পরিচিত হইব এবং সর্বক্ষেত্রেই আমার নাম আব্দুল্লাহ খাঁ ব্যাবহার করিব।
নাটোর জেলার বাসিন্দা খাদিজা খাতুনের সাথে দীর্ঘদিন যাবত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ হওয়ায় উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়।এক পর্যায়ে মেয়েটি তার ডাকে সাড়া দিয়ে চলে আসে।আসার পর জানতে পারে ছেলেটি সনাতন ধর্মের। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়।অবশেষে সুনামগঞ্জ র‍্যাব-৯ এর কর্মকর্তা শরনাপন্ন হলে তিনি তাদেরকে আদালতের শরনাপন্ন হয়ে আইনি প্রক্রিয়ায় বিয়ের বিষয়টি নিষ্পত্তি করার পরামর্শ দেন।
ছেলে মেয়ে সুনামগঞ্জ আদালতে উপস্হিত হয়ে নোটারী পাবলিক সম্পন্ন করে। আদালত তাদেরকে নিকানামার মাধ্যমে বিয়ের কাজ নিষ্পত্তি আদেশ প্রদান করে।গত ০৪ নভেম্বর ছেলে-মেয়ে নোটারী পাবলিক সম্পন্ন করার ডকুমেন্ট কৈতক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করলে হাসপাতালের ইনচার্জ ডাঃ মোহাম্মদ মোজাহারুল ইসলাম স্হানীয় ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম,সাবেক মেম্বার সামছুদ্দীন,
সাংবাদিক নূর মিয়া রাজু,রাজ উদ্দীন,
ব্যাবসায়ী আবুল হোসেন, হাজী আসকর আলী সহ গন্যমান্য লোকদের নিয়ে জাউয়া বাজার কাজী অফিসের নিকা রেজিস্টারের মাধ্যমে নিকানামা সম্পাদন করে তাদের বিয়ে সম্পন্ন করেন।বিয়ে অনুষ্ঠানে হাফিজ বদরুল ইসলাম উপস্হিত থেকে বর কনেকে ইসলামি বিধি মোতাবেক পুনরায় তওবা করান।পরে তিনি মোনাজাত অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।এ ব্যাপারে মেয়ে খাদিজা খাতুন’র মতামত জানতে চাইলে সে জানায়,
আমি স্ব-ইচ্ছায় উপরোক্ত কাজগুলো আইনি ও নিকানামা সম্পন্ন করে ইসলামী বিধি মোতাবেক বিবাহ কাজ সম্পন্ন হওয়ায় আমরা সবার কাছে কৃতঞ্জতা প্রকাশ করছি।বর্তমানে আমরা স্বামী-স্ত্রী হিসেবে সংসার জীবন শুরু করলাম।সকলের সহযোগিতা ও দোয়া প্রত্যাশী।

সর্বাধিক ক্লিক