প্রচ্ছদ

জুড়ীতে উপবৃত্তি নিয়ে ব্যস্ত প্রাথমিক শিক্ষকরা, লেখাপড়ায় বিঘ্ন ঘটছে

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:৫৬

329
প্রাথমিক শিক্ষা

জুড়ী প্রতিনিধি :: প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সমাপনী ও বার্ষিক পরীক্ষা অত্যাসন্ন। এসময় শিক্ষকরা শ্রেণি কার্যক্রম নিয়ে ব্যস্ত থাকার কথা।

কিন্তু তার পরিবর্তে মৌলভীবাজারের জুড়ী উপজেলার ৮৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা উপবৃত্তির ফরম নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। যে কারনে শ্রেণি কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটছে।

উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা অভিযোগ করেন, রুপালী ব্যাংক শিওর ক্যাশের মাধ্যমে উপবৃত্তি প্রাপ্তদের হিসাব খোলার কথা। যা নতুন বছরে শিক্ষার্থী ভর্তি কার্যক্রম শেষে ফেব্রুয়ারিতে হবে। এখন বছরের শেষ সময় সকল বিদ্যালয়ে উপবৃত্তির ফরম বিতরণ করা হয়। নির্ভূল ভাবে একটি ফরম পূরণ করতে দেড়/দুই ঘন্টা সময় লেগে যায়। এ কাজ করতে গিয়ে শ্রেণি কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটছে। সমাপনী ও বার্ষিক পরীক্ষার পূর্বমূহুর্তের ক্লাস গুলো খুবই গুরুত্ববহ। এমতাবস্থায় শিক্ষকরা উপবৃত্তির কাজ করতে হচ্ছে।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রাজন কুমার সাহা বলেন, অধিদপ্তর থেকে ফরমগুলো পাঠানো হয়েছে। যদিও এর সময় ইতিমধ্যে চলে গেছে। তাই শিক্ষকদের কোন চাপ দেয়া হচ্ছে না। সময় সুযোগে কাজগুলো করার জন্য বলা হয়েছে।

সর্বাধিক ক্লিক