প্রচ্ছদ

দ:সুরমায় পুকুরে ভেসে উঠলো যুবকের লাশ

১৩ জুলাই ২০১৯, ০১:৪১

sylnewsbd.com

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার সিলাম ইউনিয়নের গোয়ালগাঁও গ্রাম থেকে নিখোঁজের দু’দিন পর এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১২ জুলাই) সকালে সিলাম ইউনিয়নের গোয়ালগাঁও গ্রামে একটি পুকুর থেকে ঐ লাশটি উদ্ধার করে মোগলাবাজার থানা পুলিশ।

নিহত যুবক সিলাম ইউপি’র গোয়ালগাঁও গ্রামের আব্দুল নুরের ছেলে কামরান আহমদ (২৬)।

পরিবার সূত্র থেকে জানা যায়, বুধবার (১০জুলাই) কামরানের সাথে তার ভাইয়ের দিনে শেষ সাক্ষাত হয়। রাতে ঘর থেকে বের হয়ে সে আর ঘরে ফিরেনি। এর পর থেকে কামরান নিখোঁজ।

শুক্রবার সকালে কামরানের লাশ তার নিজ বাড়ির পুকুরে ভেঁসে উঠে। এ সময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশকে খবর দেয়া হয়। পরে পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং স্থানীয়রা মিলে পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারের সময় লাশের মুখে , নাকে ও গলায় একাধিক আঘাতের চিহৃ রয়েছে বলে জানান নিহতের পরিবারের লোকজন। লাশটি উদ্ধারের পর এসএমপি’র মোগলাবাজার থানা পুলিশ সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ৫ নং সিলাম ইউপি চেয়ারম্যান ইকরাম হোসেন বখত জানান, গোয়ালগাঁওয়ে পুকুরে কামরান নামের এক যুবকের লাশ পাওয়া গেছে বলে তার কাছে সংবাদ আসে । তাৎক্ষনিক তিনি ঘটনাস্থলে যান এবং তিনি ও স্থানীয়দের সামনে পুলিশ পুকুর থেকে লাশ উদ্ধার করেন।

মোগলাবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আখতার হোসেন জানান, সিলাম ইউপি’র গোয়ালগাঁও গ্রামে নিজ বাড়ীর পুকুরে এক যুবকের লাশ দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

তিনি আরো জানান, নিতের ভাই তাদেরকে জানিয়েছেন সর্বশেষ বুধবার (১০ জুলাই) কামরানের সাথে তাদের কথা হয়েছে। এরপর থেকে কামরান নিখোঁজ ছিলেন।

ওসি আরো জানান, উদ্ধারকৃত লাশের শরিরে যে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তা হয়তো পুকুরে পড়ে যাওয়ার পর পাথর, গাছের ডাল বা বাঁশের সাথে আঘাত লেগে এমন হতে পারে। তবে এ ব্যাপারে তদন্ত হচ্ছে। বর্তমানে থানায় অপমৃত্যু মামলা দাখিল করা হয়েছে।

তবে লাশ উদ্ধারের পর তার পরিবার দাবি করছে তাদের ছেলে কামরান নিখোঁজ হয়নি তাকে অপহরণ করে পলিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

সর্বাধিক ক্লিক