প্রচ্ছদ

প্রধানমন্ত্রীর সফর সঙ্গী হয়ে চীন যাচ্ছেন সাংবাদিক ফয়ছল আহমদ মুন্না

৩০ জুন ২০১৯, ২১:৩৭

sylnewsbd.com

সিল-নিউজ বিডি-ডেস্ক :: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সঙ্গী হয়ে পাঁচ দিনের সরকারি সফরে আগামীকাল সোমবার চীন যাচ্ছেন সিলেটের প্রতিশ্রুতিশীল সাংবাদিক ফয়ছল আহমদ মুন্না।

সোমবার (১জুলাই) বিকেল ৫টার দিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ালাইন্সের বিজি-১৭২০ বিশেষ ফ্লাইটে চীনের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে রওনা হবেন তিনি। আগামী ৬ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেশে ফেরার কথা রয়েছে তাঁর।

ফয়ছল আহমদ মুন্না দক্ষিণ সুরমা উপজেলার রেঙ্গা হাজীগঞ্জ শাদতপুর গ্রামের মৃত আপ্তাব আলী ও জাহানারা বেগম দম্পতির পুত্র। তিনি দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকতার পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ ফয়ছল আহমদ মুন্না বর্তমানে দৈনিক শুভ প্রতিদিনের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ও চ্যানেল আই ইউরোপের সিলেট প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত আছেন। এর আগে তিনি যমুনা টেলিভিশন, একুশে টেলিভিশন ও দৈনিক সবুজ সিলেটে কাজ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সফরকালে তিনি বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বার্ষিক সম্মেলনে যোগ দিবেন এবং বেইজিং এ চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিংপিং ও প্রধানমন্ত্রী লী কেকিয়াং-এর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের আমন্ত্রণে সরকারি সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে কয়েকটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে। স্থানীয় সময় মধ্য রাতে চীনের লিয়াওনিং প্রদেশের ডালিয়ান ঝোউশুইঝি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন তিনি। 

সেখানে বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে সাংগ্রি-লা হোটেলে বিশ্রাম নেবেন শেখ হাসিনা। সম্ভাব্য কর্মসূচি অনুযায়ী সফরের দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার সকালে ডালিয়ান আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের গ্রীষ্মকালীন বৈঠকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্থানীয় সময় বিকেলে শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করবেন ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামে প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী চেয়ারম্যান ক্লাউস সোয়াব। ডালিয়ান আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘কো-অপারেশন ইন দ্য প্যাসিফিক রিম’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনায় অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী বুধবার স্থানীয় সময় সকালে চীন সরকারের বিশেষ বিমানে ডালিয়ান থেকে বেইজিং যাবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি।

বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বেইজিংয়ে ডিয়াওইউতাই স্টেট গেস্টহাউজে নেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রীকে। সফরকালে সেখানেই অবস্থান করবেন শেখ হাসিনা। ৪ জুলাই দুপুরে চীনের প্রধানমন্ত্রী কেছিয়াং-এর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা। বৈঠকের পর দুই দেশের মধ্যে কয়েকটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হতে পারে। দুপুরে চীনা প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভোজে যোগ দেবেন শেখ হাসিনা। এদিন বিকেলে চীনের ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

৫ জুলাই বিকেলে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাতে চীনা প্রেসিডেন্টের দেওয়া নৈশভোজে অংশ নেবেন তিনি। ৬ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

সর্বাধিক ক্লিক