‘ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করতেই তড়িঘড়ি তফসিল’

নভেম্বর ০৯ ২০১৮, ১৯:১১

সিলনিউজ ডেস্ক :: জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন বলেছেন, এক তরফা নির্বাচনের জন্য তড়িঘড়ি করে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।

রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে শুক্রবার বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশে তিনি মোবাইল ফোনে একথা বলেন।

শারীরিক অসুস্থতার কারণে ড. কামাল হোসেন এই সমাবেশে যোগ দিতে পারেননি।

ড. কামাল হোসেন বলেন, ১৬ কোটি মানুষের অধিকার আদায়ের জন্যই ঐক্যফ্রন্ট আন্দোলন করছে। অধিকার আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

তিনি বলেন, সংলাপে শেখ হাসিনার কাছে ৭ দফা দাবি উত্থাপন করেছি। তিনি আমাদের কোনো দাবিই মানেননি। বরং তড়িঘড়ি করে তফসিল ঘোষণা করিয়েছেন। যা মানুষের ভোটাধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

ড. কামাল হোসেন জানান, অসুস্থতার কারণে তিনি রাজশাহীতে আসতে পারেনি। পরবর্তীতে রাজশাহীতে আসবেন।

এর আগে দুপুর আড়াইটায় পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে এ সমাবেশ শুরু হয়।

ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহী বিভাগের সমন্বয়ক বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, জেএসডির সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) অলি আহমদ, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানুল্লাহ আমান, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লাহ বুলু প্রমুখ।

দুপুর আড়াইটায় সমাবেশ শুরু হলেও জুমার পর থেকে নেতাকর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে জড়ো হতে থাকেন।

প্রসঙ্গত, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি আদায়ে নবগঠিত জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহীতে এটি চতুর্থ সমাবেশ।

এর আগে গত মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।

তার আগে ২৪ অক্টোবর সিলেটে ও ২৭ অক্টোবর চট্টগ্রামে সমাবেশ করে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।



এ সংবাদটি 371 বার পড়া হয়েছে.
সংবাদটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    3
    Shares



sylnewsbd.com

Facebook By Weblizar Powered By Weblizar

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ ২৪ খবর

………………………………….

বিজ্ঞাপনের জন্য নির্ধারিত

....................................................................................... ..........................................

add area

Post Archive

January 2019
S S M T W T F
« Dec    
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031  

সিলেট আরও