প্রচ্ছদ

সুনামগঞ্জে বন্য পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

১৩ জুলাই ২০১৯, ১৩:৩০

sylnewsbd.com

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি শনিবার (১৩ জুলাই) ৩ সেন্টিমিন্টার কমে বিপদ সীমার ৮৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রভাবিত হচ্ছে। গতকাল শুক্রবার (১২ জুলাই) বন্যার পানি বিপদ সীমার ৮৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

গত কয়েক দিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলের কারণে বন্যা শুরু হয়েছে জানান সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আবু বকর সিদ্দিক ভুইয়া।

তিনি আরও জানান, শনিবার সকাল পর্যন্ত জেলার ১১টি উপজেলার ১৫ হাজার পরিবারের ৮০ হাজার লোক পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন। জেলার বিশ্বম্ভপুর, তাহিরপুর, দোয়ারাবাজার, সুনামগঞ্জ সদর, জামালগঞ্জ, ধরমপাশা উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে।

সদর উপজেলার কুতুবপুর গ্রাম ঘুরে দেখা যায়, গ্রামের রাস্তাঘাট ডুবে যাওয়ায় মানুষের চলাচলে খুব অসুবিধা হচ্ছে। এছাড়াও প্রতিটি বাড়িতে পানি ঢুকায় গ্রামবাসী গোবাদী পশু ও হাঁসমুরগি নিয়ে বিপদে আছেন। পানির কারণে তারা রান্না করতে পারছেন না। এ কারণে গ্রামবাসীকে শুকনো খাবার খেতে হচ্ছে।

কুতুবপুর গ্রামের কৃষক আবদুল মজিদ জানান, তাদের এলাকায় এখনও ত্রাণ বিতরণ শুরু হয়নি। পানির কারণে তারা কোনও কাজ করতে পারছেন না। তাই পরিবার নিয়ে অসুবিধায় আছেন।

প্লাবিত এলাকায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান জেলার ত্রাণ ও পুণর্বাসন অফিসার মো. ফজলুর রহমান।

তিনি বলেন, জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের শুকনো খাবার, চাল ও নগদ টাকা দেওয়া হয়েছে।

সর্বাধিক ক্লিক