প্রচ্ছদ

৩০ বছর……

০৬ মে ২০১৯, ০০:০৪

sylnewsbd.com

খালেদ মুহিউদ্দিন :: আমার আব্বা মারা গেছেন আজ ৩০ বছর হল। সেসময় তার বয়স ছিল ৪৪/৪৫। কিন্তু পেছনে ফিরে তাকালে মনে হয় মাঝবয়সী লোকটি ছিলেন শিশুর মতো। বড় কোনো ভাব নাই, জীবন নিয়া হতাশা নাই, মাঠে গিয়ে ফুটবল ক্রিকেট খেলার হারজিত ছাড়া আর কোনো চিন্তা নাই।

সচিবালয়ে সাঁটলিপিকারের কাজ করতেন তিনি। মিরপুরে একটা ছোট্ট বাসায় থাকতাম আমরা। ফিন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট এ শূন্য পেয়েছেন তিনি জীবনভর। মাসের প্রথম বাজারটা ইচ্ছেমত করে বাকি দিন আম্মার অসাধারণ ব্যবস্থাপনা গুণে শাক ডিম খেয়ে বা ধার কর্জ করে জীবনধারণ করেছেন।

কিন্তু কোনোদিন তাকে চাকরি, কম বেতন বা ছোট বাসা নিয়া আফসোস করতে দেখি নাই। বরং ডিমের তরকারি, ডাল আর কোনো একটা ভর্তা বা ভাজি যে কী দারুণ খেতে আর মিরপুরের ছোট বাসায় থাকা যে কী সুবিধাজনক তাই শুনে গেছি আমরা।

আমরা তিন ভাই কেউ পুরোপুরি তার মত হই নাই। মুস্তাফিজ তবুও কিছুটা, আমি বা আরমান মনে হয় একেবারেই না।

জীবন যতটুকু যা দেয় তাতে সন্তুষ্ট না হতে পারলেও খুশি হওয়া একদিন নিশ্চয়ই শিখে যাব। এই খুশি হওয়ার বিদ্যায় ছিল আমার বাবার অনায়াস দক্ষতা। এই জন্য আমার চোখে তিনি সব সময়ের গ্রেট ম্যান।

লেখক: সাংবাদিক।

সর্বাধিক ক্লিক