অতিরিক্ত মূল্যে লবন বিক্রির অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ড

প্রকাশিত: 11:47 AM, November 19, 2019

অতিরিক্ত মূল্যে লবন বিক্রির অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ড

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হঠাত বাজারে লবণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির চেষ্টা ও অতিরিক্ত মূল্যে লবন বিক্রির অপরাধে ৪ জনকে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড  দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর মধ্যে দুই ব্যক্তিকে ১০ দিনের কারাদণ্ড ও দুইজনকে অর্থদণ্ড দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) দিনগত রাত ১টার দিকে হবিগঞ্জের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা এই দণ্ডাদেশ প্রদান করেন ।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- শহরের রাজনগর এলাকার ব্যবসায়ী মো. আব্দুল কাদির নানু, বাতিরপুর এলাকার কানাই দাসের ছেলে সুরঞ্জিত দাস, চৌধুরী বাজার এলাকার রাজকুমার রায়ের ছেলে মিঠুন রায় ও নোয়াহাটি এলাকার রবিন্দ্র পালের ছেলে রঞ্জিত পাল।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াছিন আরাফাত রানা বলেন- আটককৃতরা বাজারে লবনের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির চেষ্টা করছিল। এ সময় অভিযান চালিয়ে ৬জনকে আটক করা হয়। পরে যাচাবাচাই করে চারজনকে দণ্ড দেয়া হয়। বাকি দুইজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণীত না হওয়ায় মুছলেকায় ছেড়ে দেয়া হয়। দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে আব্দুল কাদির নানু ও সুরঞ্জিত দাসকে ১০ দিন করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া  মিঠুন রায় ও রঞ্জিত পালকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তারা দুইজন ৫০ টাকা কেজি দরে লবন বিক্রির করছিলেন। এ সময় ব্যবসায়িদের মজুদ রাখা প্রায় ২০ বস্তা লবণ জব্দ করে ভ্রাম্যমান আদালত।

এর আগে সোমবার রাত ৮টার পর হঠাৎ করে হবিগঞ্জে গুজব ছড়ানো হয় লবণের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। এতে ব্যবসায়ি ও ক্রেতাদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। ব্যবসায়ীরা লবণ মজুদ করতে শুরু করেন। অন্যদিকে ক্রেতাদের মধ্যেও লবন কিনকে হুলুস্তুল সৃষ্টি হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের ফেইসবুক পেইজ