অনেক দক্ষ চালক ট্রাফিক আইন জানেন না : বিভাগীয় কমিশনার

প্রকাশিত: ১২:৫১ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

অনেক দক্ষ চালক ট্রাফিক আইন জানেন না : বিভাগীয় কমিশনার

সিল-নিউজ বিডি-ডেস্ক :: অধিকাংশ চালকই ট্রাফিক আইন জানেন না বলে মন্তব্য করেছেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান পিএএ।

জীবনের আগে জীবিকা নয়, সড়ক দুর্ঘটনা আর নয়’ এ স্লোগানে মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে জেলা পরিষদ মিলনায়তনে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন- সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে দক্ষ চালকের কথা বলা হয়। এবং কিছু দক্ষ চালক সড়কে যানবাহন চালান। কিন্তু অধিকাংশ চালক জানেন না ট্রাফিক আইন। সড়কে যানবাহন চালালে সেটা জানতে হবে। তবে আমরা সকলে নিরাপদ সড়ক চাই সেখানে কারো দ্বিমত নাই। তিনি চালকসহ সকলকে নিয়ে ট্রাফিক আইন সম্পর্কিত আরো একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করার জন্য সিলেট বিআরটিএ কে অনুরোধ করেন।

জেলা প্রশাসন ও বিআরটিএ এর যৌথ উদ্যোগে সিলেট জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও মাসুদ পারভেজের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি কামরুল আহসান বিপিএম (বার), সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার গোলাম কিবরিয়া বিপিএম, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) বিদায়ক রায় চৌধুরী, সিলেট পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম, উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ, সিলেট সওজ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী তুষার কান্তি শাহা, সিলেট বিআরটিএর উপ-পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার) মুহা. শহীদুল্যাহ্ কায়ছার।

এসময় সিলেট রেঞ্জ ডিআইজি কামরুল আহসান বিপিএম (বার) সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ে কাজ করে এমন এক সংস্থার গবেষণার উদৃতি দিয়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার ৫টি অন্যতম কারণ- চালকদের বেপরোয়া আচরণ, চালকদের দক্ষতার অভাব, ফিটনেসবিহীন যানবাহন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বিআরটিএ এর উদাসীনতার অভাব এবং পথচারীদের অসাবধানতা। সবার অবস্থান থেকে সকলকে সচেতন হবার আহবান জানান তিনি।

সিলেট পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন, কানে হেডফোন দিয়ে রাস্তা পার হওয়া, ট্রেন আসছে শব্দ হচ্ছে দেখে গাড়ি দ্রুত চালিয়ে যাওয়ায় দুর্ঘটনার আরেক কারণ। তাদের সচেতন হতে হবে। গাড়ি চালকদের পক্ষে তিনি আছেন উল্লেখ করে আরো বলেন, যারা সড়ক পার হন সেই সব জনসাধারণকে আগে সচেতন হতে হবে। সিলেটের সড়কে ১৫ হাজার অবৈধ সিএনজি চলাচল করছে। এটা কে রোধ করবে? গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট, ফেঞ্চুগঞ্জ সহ যেসব সড়কে গণ পরিবহন নাই সেখানে নতুন সিএনজির রেজিস্ট্রেশন দেয়ার ও ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানে সহজ করার দাবি জানান।

উপ-পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) ফয়সল মাহমুদ বলেন, চিত্রনায়ক ইলিয়াছ কাঞ্চনের স্ত্রী চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন। তার পর থেকে ইলিয়াছ কাঞ্চন নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। সরকারীভাবে ২০১৭ সাল থেকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালিত হয়ে আসছে।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম বলেন, অচিরেই সিলেটের সড়কে ডাবলডেকার সহ চারটি বিআরটি বাস নামানো হবে। বাস চলাচল করলে জনসাধারণ বাসে চলাফেরায় অভ্যাস হলে সিএনজি চলাচল কমে আসবে। সিএসনজি বড় সড়কে নয়, ছোটছোট সড়কে চলাচল করার কথা। সেটা বন্ধ করা হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিন, জেলা প্রশাসনের এডিএম মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, নিরাপদ সড়ক চাই সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন খাঁন প্রমুখ। এছাড়া জেলা প্রশাসক ও বিআরটিএ এর সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সিলেট বিআরটিএ এর সহকারী পরিচালক মো. সানাউল হক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের ফেইসবুক পেইজ