আলিম দার সম্পর্কে কাউকে খারাপ কথা বলতে শুনিনি: সাকলাইন

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ২৬, ২০২০

আলিম দার সম্পর্কে কাউকে খারাপ কথা বলতে শুনিনি: সাকলাইন

খেলা ডেস্ক :: পাকিস্তানের জনপ্রিয় আম্পায়ার আলিম দারের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন সাকলাইন মুশতাক।

ক্রিকেট থেকে অবসরে কোচিং পেশায় জড়িয়ে যাওয়া সাকলাইন মুশতাক বলেছেন, আমি আলিম দারকে সালাম জানাই। তিনি একজন দুর্দান্ত কিংবদন্তি। তিনি অনেক ক্রিকেট ম্যাচ পরিচালনা করেছেন। আমি মনে করি কোনো স্টেডিয়াম বা কোনো গ্যালারির নাম আলিম দারের নামে রাখা উচিত। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) এ ব্যাপারে চিন্তা করা উচিত। একইভাবে আইসিসির উচিত এই প্রতিভাবান আম্পায়ারকে শ্রদ্ধা জানানো।

পাকিস্তানের হয়ে ৪৯টি টেস্টে আর ১৬৯টি ওয়ানডে ম্যাচে অংশ নিয়ে ৪৯৬ উইকেট শিকার করা সাকলাইন মুশতাক ক্রিকেট থেকে অবসরে কোচিং পেশায় জড়িয়ে যান তিনি। সবশেষ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের ট্রফি জয়ে অন্যন্য ভূমিকা রেখেছেন তিনি।

৪৩ বছর বয়সী এ সাবেক তারকা ক্রিকেটার সম্প্রতি এক ইউটিউব ভিডিওতে সাকলাইন মুশতাক বলেন, আমি মনে করি আলিম দার বিশ্বের সকল আম্পায়ার এবং ক্রিকেটারপ্রেমীদের জন্য অনুপ্রেরণাদায়ক। আম্পায়ারিংয়ে তার সবচেয়ে আন্তর্জাতিক উপস্থিতি রয়েছে। আমার খেলার দিনগুলিতে, আমি দেখেছি প্রতিটি দেশই তাকে বিশ্বাস করে। তারা চেয়েছিল যে তিনি তাদের আম্পায়ার হন।

১৯৮৬ থেকে ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে ১৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ আর ১৮টি লিস্ট এ ম্যাচ খেলেন আলিম দার। ক্রিকেট থেকে অবসরে আম্পায়ারিংয়ে জড়িয়ে যাওয়া পাঞ্জাবের এ ক্রিকেটার ইতিমধ্যে ১৩২টি টেস্ট, ২০৮টি ওয়ানডে আর ৪৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ পরিচালনা করেছেন।

আইসিসির এলিট প্যানেলভূক্ত এ আম্পায়ার প্রসঙ্গে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) হাই পারফরম্যান্সের অপারেশনস ম্যানেজার সাকলাইনস মুশতাক বলেছেন,আলিম দার একজন উচুঁ মানের আম্পায়ার। আমি কখনই কাউকে তার সম্পর্কে খারাপ কথা বলতে শুনিনি। আমি ২০১৬ সাল থেকে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের স্পিন বোলিং পরামর্শদাতা হিসাবে কাজ করেছি। তখন থেকেই ইংলিশদের ড্রেসিংরুমে যেসব সেরা আম্পায়ারদের নিয়ে কথাবার্তা হতো তার মধ্যে অন্যতম ছিলেন আলিম দার। ইংলিশ খেলোয়াড়রা বলতেন যে তিনি একজন সৎ মানুষ এবং তার সিদ্ধান্তগুলি অত্যন্ত নির্ভেজাল।

আম্পায়ারিংয়ের জন্য পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতি পুরষ্কার, ২০০৯, ২০১০ এবং ২০১১ সালে পরপর তিনবার আইসিসির ‘আম্পায়ার অফ দ্য ইয়ার’ পুরস্কার জিতেছেন আলিম দার।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ