ইউপি নির্বাচন : পীর হবিবুর রহমানের আত্বীয় জামায়াত নেতা লালাবাজারের চেয়ারম্যান পীর ইকবাল যা বললেন!

প্রকাশিত: ১২:২৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৬, ২০২১

ইউপি নির্বাচন : পীর হবিবুর রহমানের আত্বীয় জামায়াত নেতা লালাবাজারের চেয়ারম্যান পীর ইকবাল যা বললেন!

নিজস্ব প্রতিবেদক

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পীর মো. ফয়জুল হক ইকবাল আসন্ন ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাতে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে এ ঘোষণা দেন তিনি।

চেয়ারম্যান পীর মো. ফয়জুল হক ইকবাল তাঁর ফেসবুকে লেখেন-

‘দেশ/বিদেশে অবস্হানরত সম্মানিত লালাবাজার ইউনিয়নের সর্বস্তরের নাগরিকবৃন্দ। আসসালামুআলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। আশা করি আপনারা সবাই নিজ নিজ অবস্হানে সুস্হতার সহিত নিরাপদে আছেন। আজ ১৪ই অক্টোবর বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন কর্তৃক ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ২৮শে নভেম্বর লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আমি নির্বাচিত হওয়ার পূর্বেই আপনাদের সাথে ওয়াদা করেছিলাম যে আমি যদি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই বা না হই এটাই আমার জীবনের ১ম ও শেষ নির্বাচন। এছাড়াও আপনারা জানেন গত কিছুদিন পূর্বে আমার দুনিয়ার জীবনের শ্রেষ্ঠ সম্পদ আমার মা জননীকে আমি হারিয়েছি। আমার মায়ের মৃত্যুর পর থেকে আমি মানসিকভাবে খুবই যন্ত্রণাদায়কভাবে প্রতিটি মুহুর্ত অতিক্রম করতেছি। এই অবস্হায় আগামী ২৮শে নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আমি অংশগ্রহণ করবো না।

আমি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত আপনাদের কাছে দেওয়া ওয়াদাগুলোর বাস্তবায়নে আমি দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে ইউনিয়নের সকল গণ্যমান্য ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে আমার জীবন বাজি রেখে ইউনিয়নের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি। তারপরেও ইউনিয়নের অনেক কাজ অসমাপ্ত রয়ে গেছে, যা সময়ের ব্যবধানে সম্পন্ন হবে ইনশাআল্লাহ।

আমি আপনাদের কাছে বিনীত অনুরোধ করবো- বিগত দিনগুলোতে চেয়ারম্যান হিসেবে চলার পথে মানুষ হিসেবে আমি যদি আপনাদের কাউকে ব্যক্তিগতভাবে কষ্ট দিয়ে থাকি তাহলে আল্লাহর ওয়াস্তে আমাকে ক্ষমা করে দিবেন। আর আমি আপনাদেরকে অনুরোধ করবো- আপনারা আগামী ২৮শে নভেম্বরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে সৎ, দক্ষ্য ও যোগ্য ব্যক্তিকে আপনাদের প্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত করবেন।
আর আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা করছি- আমি চেয়ারম্যান থাকা অবস্হায় আমাকে যেভাবে আপনাদের সুখে-দু:খে আমাকে পাশে পেয়েছেন আগামীতেও আমাকে আপনাদের পাশে পাবেন। আমি আপনাদেরই সন্তান, এই দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজারই আমার জন্মস্হান।

আমার ও আমার পরিবারের জন্য আপনারা দোয়া করবেন- আমি ও আমার পরিবার যেন আমৃত্যু আর্তমানবতার কল্যাণে কাজ করে যেতে পারি, মহান রাব্বুল আলামিন আমাকে যেন সেই তাওফিক দান করেন। আমিন।’

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ