কমলগঞ্জে বকেয়া মজুরি পেয়ে পূজার আনন্দে উৎফুল্ল চা শ্রমিকরা

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০২০

কমলগঞ্জে বকেয়া মজুরি পেয়ে পূজার আনন্দে উৎফুল্ল চা শ্রমিকরা

 

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বকেয়া মজুরি পেয়ে দূর্গা পুজায় আনন্দে উৎফুল চা শ্রমিকরা। এ মজুরির অর্ধেক অংশ ৩ হাজার করে টাকা পাওয়ায় শ্রমিকরা কেনাকাটায় হাট-বাজারে ভিড় করছেন। সরজমিন বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গত দু’দিন ধরে ভিড় করতে দেখা গেছে।

জানা গেছে, ২০১৯ সনের জানুয়ারীতে চা শ্রমিকদের মজুরির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়। ফলে গত ১৫ অক্টোবর দ্বিপাক্ষিত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। স্বাক্ষরিত এই চুক্তি বাস্তবায়ন হবে ২০১৯ সনের জানুয়ারী থেকে এবং চলতি বছরের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই চুক্তির মেয়াদ কার্যকর থাকবে। পূর্বের দৈনিক মজুরি ১০২ টাকা থেকে ১৮ টাকা বেড়ে ১২০ টাকা নির্ধারিত হয়। শ্রমিকদের বকেয়া হিসাবে জন প্রতি প্রায় ৬ হাজার টাকা আসে।

মালিক পক্ষ দু’কিস্তিতে শ্রমিকদের পাওনা ৬ হাজার টাকা পরিশোধ করবে। বৃহস্পতিবার শমশেরনগর চা বাগানে প্রথম কিস্তি হিসাবে শ্রমিকদের ৩ হাজার টাকা প্রদান করা হয়। এই টাকা পেয়েই শ্রমিকরা পূজায় হাটবাজারে কেনাকাটায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। গত দু’দিন ধরে বৃষ্টির মধ্যেও হাটবাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে তাদের কেনাকাটা লক্ষ্য করা গেছে।

শমশেরনগর চা বাগানের মনি গোয়ালা, সন্তোষী র্যা লী, দেওছড়া গীতা রবিদাস, কানিহাটি চা বাগানের মীনা ঘাটোয়ারা, সীতারাম বীন সহ শ্রমিকরা বলেন, পূজার সময়ে এই টাকা পেয়ে কাজে লাগছে। বর্তমান বাজার দরের তুলনায় মজুরি খুবই অল্প। তারপরও এককালীন ৩ হাজার টাকা করে পাওয়ায় সন্তানদের কাপড় চোপড়, জুতাসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনে দিতে পারছি। এটি বাড়তি আনন্দ যোগাচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ