কলকাতা-বেঙ্গালুরু ম্যাচ স্থগিত

প্রকাশিত: ৭:৩৬ অপরাহ্ণ, মে ৩, ২০২১

কলকাতা-বেঙ্গালুরু ম্যাচ স্থগিত

স্পোর্টস ডেস্ক

 

মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে তাণ্ডবে যখন লণ্ডভণ্ড ভারত, তখন মৃত্যুপুরীতে দাঁড়িয়েই চলছে জমজমাট আইপিএল।

করোনার সংক্রমণ এড়াতে বায়ো বাবল সুরক্ষা কঠিন থেকে কঠিনতর করেছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তাতেও লাভ হয়নি। শেষমেশ করোনা হানা দিলই আইপিএলে।

সাকিবের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সে হানা দিল প্রাণঘাতী এ ভাইরাস। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দলের স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী ও সাইড বেঞ্চে থাকা ফাস্টবোলার সন্দীপ ওয়ারিয়র।

নাইট শিবিরের দুই ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় কলকাতা বনাম বেঙ্গালুরুর ম্যাচ স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আইপিএল কর্তৃপক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে— দলে করোনাভাইরাসের হানায় নিরাপত্তার স্বার্থে ও করোনাঝুঁকি এড়াতে ৩ মে অনুষ্ঠিতব্য কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর ম্যাচটি স্থগিক করা হলো।

ম্যাচটি অন্যদিন খেলা হবে।

তবে ম্যাচের নতুন দিন-তারিখ এখনও ঘোষণা করেনি কর্তৃপক্ষ।

আজ বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৮টায় আহমেদাবাদের মোতেরায় ম্যাচটি হওয়ার কথা ছিল।

আইপিএলের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে— ‘গত চার দিনে তৃতীয় রাউন্ডের টেস্টে বরুণ চক্রবর্তী ও সন্দীপ ওয়ারিয়র করোনা পজিটিভ চিহ্নিত হয়েছেন। দলের বাকি সব সদস্যের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ। দুই ক্রিকেটারকে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। মেডিকেল টিম দুই ক্রিকেটারের স্বাস্থ্যের দিকে সর্বদা নজর রেখেছে।

এদিকে এমন খবরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে নাইট শিবিরে। কারণ খেলা চলাকালে বরুণের সংস্পর্শে এসেছেন অধিনায়ক এইউন মরগ্যানসহ কেকেআরের অনেকেই।

তাই অধিকতর নিশ্চিত হলে দলের সবার ফের করোনা টেস্ট করা হয়েছে। এখন সেই রিপোর্টের অপেক্ষায় শাহরুখ খানের দল।

এ বিষয়ে আইপিএল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ‘কলকাতা নাইট রাইডার্সের আর কোনো খেলোয়াড় কিংবা স্টাফ করোনা পজিটিভ কিনা তা নির্ধারণ করতে সবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হচ্ছে। মেডিকেল টিম এটিও নির্ধারণ করছে যে, নমুনা সংগ্রহের ৪৮ ঘণ্টা আগে পর্যন্ত কারা আক্রান্ত দুই ক্রিকেটারের সংস্পর্শে এসেছিলেন।’

বায়ো বাবল সুরক্ষায় থেকেও কীভাবে দুই ক্রিকেটার আক্রান্ত হলেন সেই প্রশ্নে খুঁজেছে গণমাধ্যমকর্মীরা।

কলকাতার জনপ্রিয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, সম্প্রতি কাঁধের চোটের জন্য স্ক্যান করাতে জৈব সুরক্ষা বলয় ছেড়ে হাসপাতালে গিয়েছিলেন বরুণ। গ্রিন করিডর দিয়ে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন। তবে সন্দীপ কীভাবে আক্রান্ত হলেন তা নিশ্চিত নয় কেউ।

এমন খবরে শঙ্কায় পড়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা। সাকিব আল হাসানও কি আক্রান্ত? করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে যে ধরনের শিকার ভারত, তা অতিমারাত্মক পর্যায়ের। খুব কমসময়েই মৃত্যুমুখে ঠেলে দেয় করোনার এই ধরনটি। ভারতের এই ভেরিয়েন্ট নিয়ে গোটাবিশ্ব এখন হুমকির মুখে।

এ বিষয়ে ক্রিকইনফো বলছে, স্পিনার বরুণ চক্রবর্তী ও সন্দীপ ওয়ারিয়র বাদে বাকি সবাই নেগেটিভ। সে হিসাবে সাকিব আল হাসান করোনায় আক্রান্ত নন বলেই জানা যাচ্ছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ