কুলাউড়ায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত ব্যক্তি গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১

কুলাউড়ায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত ব্যক্তি গ্রেপ্তার

স্বপন দেব, নিজস্ব প্রতিবেদক ::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী যুবতীকে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় দুইদিন পর মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই যুবতী বাদি হয়ে থানায় মামলাটি করেছেন। মামলায় ধর্ষণ চেষ্টাকারী আব্দুল আলীকে প্রধান আসামি করা হয়েছে। এছাড়া সালিশকারীদের মধ্যে ছয়জনকেও আসামি করা হয়েছে।

এদিকে মামলার পরই মঙ্গলবার বিকেলে অভিযুক্ত আব্দুল আলীকে (৪০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সে উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে।

কুলাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিনয় ভূষণ রায় এই তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ওই যুবতী থানায় মামলা করেছেন। মামলার পরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আব্দুল আলীকে গ্রেপ্তার করেছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ভুক্তভোগী বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী ওই যুবতীর বাবা নেই। তার মা এলাকায় মানুষের বাড়িতে কাজ করে সংসার চালান। গত রোববার ওই যুবতীর মা বাড়িতে ছিলেন না। এই সুযোগে বিকেলে প্রতিবেশী আব্দুল আলী জোরপূর্বক ওই যুবতীকে পাশের বাড়ি স্থানীয় ইউপি সদস্য নেহার বেগমের ঘরে ধর্ষণ চেষ্টা চালায়। এ সময় ইউপি সদস্যের মেয়ে বিষয়টি দেখে ফেলায় সটকে পরে আব্দুল আলী। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে ইউপি সদস্য নেহার বেগমের নেতৃত্বে জনৈক সুমনের দোকানে সালিশ বৈঠক বসে। রাতে উভয়পক্ষের সম্মতিতে বিষয়টি আপোসে মীমাংসা করে দেন স্থানীয় সালিশকারীরা। সালিশে অভিযুক্ত আব্দুল আলীকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি ১০০ টাকার স্ট্যাম্পে ওই যুবতী ও সালিশকারীদের স্বাক্ষর রাখা হয়।

ভুক্তভোগী যুবতীর মা বলেন, স্থানীয় সালিশকারীরা আব্দুল আলীকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ