কুলাউড়ায় যানজট, জলাবদ্ধতাসহ একগুচ্ছ কর্মপরিকল্পনা নিয়েছেন পৌর মেয়র

প্রকাশিত: ৮:২৪ অপরাহ্ণ, মে ৭, ২০২১

কুলাউড়ায় যানজট, জলাবদ্ধতাসহ একগুচ্ছ কর্মপরিকল্পনা নিয়েছেন পৌর মেয়র

স্বপন দেব, নিজস্ব প্রতিবেদক :: কুলাউড়া পৌর এলাকায় দীর্ঘদিনের যানজট সমস্যা, জলাবদ্ধতা, সিএনজি ষ্ট্যান্ড স্থানান্তর, ফুটপাত পথচারীদের চলাচলের জন্য উপযোগী করাসহ এক গুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়ে পৌর শহরকে সাজানোর কাজ শুরু করতে যাচ্ছেন কুলাউড়া পৌরসভার মেয়র অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ। তিনি এসব কাজে পৌরবাসী, প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সহায়তা কামনা করেছেন।
বৃহস্পতিবার ৬ মে দুপুরে কুলাউড়া পৌরসভা মিলনায়তনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় কালে পৌরসভার প্রধান সমস্যাগুলো সম্পর্কে পৌর মেয়র তাঁর পরিকল্পনা তুলে ধরেন।
শহরের তীব্র যানজট নিরসনে পৌর এলাকার দুই পাশে সড়ক ও জনপথ বিভাগের সহায়তা নিয়ে শহরের দুই দিকে সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ড করার পরিকল্পনা নিয়েছেন। পৌরসভার জলাবদ্ধতা নিরসনে মরা গোগালী খাল খনন ও অবৈধ দখলমুক্ত করে পৌর এলাকার ড্রেনগুলোকে মরা গোগালী ও অন্যান্য ছড়ার সাথে সংযোগ করবেন বলে জানান। পরিকল্পিতভাবে এই ড্রেনগুলো করা গেলে শহরের পানি দ্রুত নিস্কাসন হয়ে জলাবদ্ধতা নিরসন হবে বলে তিনি মনে করেন।
শহরের দোকানের সামনে মালামাল রেখে সড়ক সড়ক ছোট করা পান সিগারেটের কেবিন বসিয়ে পথচারী চলাচলে অসুবিধা সৃষ্টি এসব বন্ধ করতে ব্যবসায়ী সংগঠনের সহায়তা কামনা করেন মেয়র। এছাড়া ফুটপাত দখলমুক্ত করতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
তিনি আরও জানান, কুলাউড়া পৌরসভায় ২৪ কোটি টাকার ওয়াটার প্লান্ট এর একটি প্রকল্প আছে। যদিও এই প্রকল্পটি এনেছিলেন সাবেক মেয়র শফি আলম ইউনুছ। কিন্তু তিনি প্রকল্পটির জন্য কৌলায় যে জায়গা বরাদ্দ দেখিয়েছিলেন তা ছিলো সাবেক মেয়রের ব্যক্তিগত জায়গা। বর্তমানে তিনি ওই জায়গা দিবেন না বলে জানিয়েছেন প্রকল্প পরিচালককে। ফলে জায়গা সঙ্কটের কারণে প্রকল্পটি বাতিল হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। এতে পৌরবাসীকে পানি সরবরাহের পরিকল্পনাটি ভেস্তে যেতে পারে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য পৌরসভার বাজেট থেকে দ্রুত সময়ে ৫০ শতাংশ জায়গা ক্রয় করার উদ্যোগ নিয়েছে তিনি।
তিনি বলেন, বিগত ২৪ বছরে কুলাউড়া পৌরসভায় কোন বড় বাজেট বরাদ্ধ হয়নি। বিগত সময়ে সারাদেশের ৮টি পৌরসভা সরকারের মেগা প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হয়েছে। এই তালিকায় ছিলো কুলাউড়া। তিনি এ অবস্থার উন্নয়নে সার্বিক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কুলাউড়া পৌরসভার উন্নয়নে সর্বাত্মক সহায়তার আশ^াস দিয়েছে বলে জানান মেয়র। তিনি জানান, কুলাউড়া পৌরসভার উন্নয়ন হবেই তবে কিছু সময় লাগতে পারে। তাই এজন্য তিনি পৌরবাসী ও গণমাধ্যমকর্মীদের সহযোগিতা কামনা করে বলেন আপনারা আমার ভুল ত্রুটিগুলো ধরিয়ে দিয়ে যথাযথো ভাবে দায়িত্ব পালনে সাহায্য করবেন।

 

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ