কেমন আছেন কামরান প্রেমিক দুই সাংবাদিক অজয়পাল ও আতাউর রহমান আতা

প্রকাশিত: ১১:৪৫ অপরাহ্ণ, জুন ২৪, ২০২০

কেমন আছেন কামরান প্রেমিক দুই সাংবাদিক অজয়পাল ও আতাউর রহমান আতা

বাবর হোসেন: ছবির এই দুজন মানুষকে বর্তমান প্রজন্মের অনেকেই চিনতে পারবেন না ।সদ্য প্রয়াত সিলেটের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের পুর্নাঙ্গ রাজনীতিবিদ হয়ে উঠার পেছনে যে সব মানুষের অবদান ছিলো তাদেঁর মধ্যে উক্ত দুই ব্যক্তিও অন্যতম। এরা দুইজনেই মিডিয়া জগতের বাসিন্দা।আজকালতো ফটো সাংবাদিকের অভাব নেই কিন্তু আতাউর রহমান আতা ভাইর মতো ফটো সাংবাদিক পাওয়া যায়না । এখনতো ক্ষেপ ধরা মার্কা ফটো সাংবাদিকদের যন্ত্রনায় রাস্তা-ঘাটে হাঁটাচলা যায়না । বয়স জনিত এবং শারিরীক কারনে আতাউর রহমান আতার,সেই ফটোর পিছনে দৌড়ে ঘুরে বেড়ানোর দৃশ্য চোখেই পড়েনা। বর্তমান সময়ের ফটো সাংবাদিকরা পরিকল্পিত চিত্র ধারনের ধান্ধায় বেশ উস্তাদ কিন্তু আতাউর রহমান আতা ভাইকে দেখেছি একটি ছবির জন্য কত দৌড়ঝাপ দিতে। সাহাদত আঙ্গুল উঠিয়ে যিনি আতা-ভাইকে ছবি দেখিয়ে দিচ্চেন তিনি হচ্চেন সিলেটের প্রখ্যাত সাংবাদিক অজয়পাল। বর্তমানে লন্ডন প্রবাসী সাংবাদিক তিনি,অজয়পালের সমকক্ষ সাংবাদিক এখনো সিলেটে তৈরী হয়েছেন কিনা আমি নিশ্চিত নই। সেই শীষার টাইপের কম্পোজও ফটো ব্লক বানানোর জমানায় খবরের পেছনের খবর সংগ্রহে অজয়পাল কতযে পরিশ্রম করতেন। অজয়পালের অবর্তমানে সেই কাজটি করতেন আজাদ ভাই।বর্তমানে সিলেটের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক আল-আজাদ। ছবি,র ক্যাপশন লেখার জন্য অজয়পাল এবং আল –আজাদ ভাই,র কাছাকাছি আজও কেউ পৌছাতে পেরেছেন বলে মনে হয়না। এখনতো অনেককেই দেখা যায় ছবি ভালো করে না দেখেই ক্যাপশন লেখা শুরু করে দেন। চেয়ে দেখুনতো,অজয়পাল একটি ছবি বাঁ হাতে নিয়ে,ফটো সাংবাদিক আতা-ভাইকে কি বুঝাতে চাচ্ছেন। দুজনেই ছবিটির এত গভীরে চলে গেছেন যে ,অন্য কোনো দিকেই তাদের খেয়াল নেই। বর্তমান সময়ের ক্যামেরা সাংবাদিকরাতো ছবি,র চেয়ে মনোযোগ রাখেন মানুষের পকেটের দিকে কিংবা হাতের দিকে । ছবি নিয়ে তাদের চিন্তা করার সময় কোথায়।অজয়পাল এবং আতাউর রহমান আতা দুজনেই ছিলেন সদ্য প্রয়াত বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের সহযোদ্বা। কামরান উক্ত দুই সাংবাদিকের অক্লান্ত পরিশ্রম এবং চিন্তা-চেতনা মুলক কর্মকান্ডের জন্য প্রতিদিন কোনো না কোনো ভাবেই,সেই মান্দাতার আমলেও মিডিয়া কভারেজ পেতেন।আতা ভাই ছবি তুলতেন আর অজয়দা ক্যাপশন তৈরী করে দিতেন,কামরান ভাইকে নিয়ে অনেক ছবি রয়েছে আতা ভাই,র কাছে। জানিনা বদর উদ্দিন আহমদ কামরানের মৃত্যুর খবর পেয়ে অজয়দা লন্ডনে বসে কিছু লিখেছেন কিনা ,আর আতা ভাই, তার প্রিয় নেতার শেষ বিদায়ের ছবি তুলেছেন কিনা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ