কোম্পানীগঞ্জে স্ট্যাটাস নিয়ে সংঘর্ষ, চেয়ারম্যান-মেম্বার আটক

প্রকাশিত: ১০:৫০ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০২১

কোম্পানীগঞ্জে স্ট্যাটাস নিয়ে সংঘর্ষ, চেয়ারম্যান-মেম্বার আটক

অনলাইন ডেস্ক
সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন ইছাকলস ইউপির নিজগাঁও এলাকায় ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে জড়িত সন্দেহে এবং পুনরায় সংঘর্ষ এড়াতে দুই পক্ষের দলনেতা ইছাকলস ইউপির চেয়ারম্যান এবং মেম্বার কে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃতরা হল- কোম্পানীগঞ্জ থানার ইছাকলস নিজগাঁও সাকিনের মৃত কবির মিয়ার ছেলে ইউপি চেয়ারম্যান কুটি মিয়া (৬৫) এবং একই গ্রামের মৃত আব্দুল আহাদের ছেলে ইউপি সদস্য আব্দুল কদ্দুছ।

রোববার (১৬ মে) সন্ধ্যা ৭ টায় সহকারী পুলিশ সুপার (গোয়াইনঘাট সার্কেল) প্রভাস কুমার সিংহের নেতৃত্বে থানা এবং ডিবি পুলিশ ঘটনাস্থল ইছাকলস নিজগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

জানা যায়- ইউপি চেয়ারম্যান কুটি মিয়ার সমর্থক স্থানীয় বজলু মিয়ার একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে আজ (১৬ মে) সকাল ৭ টার দিকে স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বার দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ২৫/৩০ জন আহত হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পরবর্তীতে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নির্দেশে পুলিশ লাইন, ডিবিসহ থানা পুলিশের অতিরিক্ত ফোর্স ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘটনার মদদদাতা হিসেবে চেয়ারম্যান এবং মেম্বার দুইজনকে আটক করে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও মিডিয়া) মো. লুৎফর রহমান জানান, তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র করে সমাজে এক শ্রেণির মানুষ পরস্পরের মধ্যে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে অনেক সময় গুরুতর আঘাত কিংবা প্রাণহানীর আশঙ্কা থাকে। এরকম বিশৃঙ্খলা রোধ করতে সংঘর্ষের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে চেয়ারম্যান এবং মেম্বারকে আটক করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ