কোম্পানীগঞ্জের “সাদা পাথর’র” আবারো পর্যটক নিহত

প্রকাশিত: 7:27 PM, July 20, 2019

কোম্পানীগঞ্জের “সাদা পাথর’র” আবারো পর্যটক নিহত

কবির আহমদ, কোম্পানীগঞ্জ :: সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ সাদা পাথর এলাকায় পানিতে ডুবে ফের এক পর্যটক’র মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার বেলা ৩ টার দিকে উপজেলার সাদাপাথর জিরো পয়েন্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইফুল ইসলাম (২৪) সিলেটের দক্ষিন সুরমা উপজেলার নিয়ামত গ্রামের তুলা মিয়ার ছোট ভাই ও সিলেট সরকারি কলেজের ডিগ্রী ৩য় বর্ষের ছাত্র।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। প্রাথমিকভাবে নিহতের পিতার নাম জানাতে পারেননি বলে জানান তিনি।

স্থানীয়রা জানায়, আজ দুপুরে ৪টি মোটরসাইকেল নিয়ে ৮জন বন্ধু সাদা পাথর দেখতে আসেন। সবাই এক সাথে নদীতে গোসল করতে নামেন। এ সময় নদীর স্রোতে তলিয়ে যায় সাইফুল ইসলাম। পরে তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে গত ৭ জুলাই ওই এলাকায় পানিতে ডুবে সিলেটের লিডিং ইউনিভার্সিটির আরেক ছাত্র নিখোঁজ হয়। ৩ দিন পরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, শনিবার বিকেল ৩টার দিকে সাইফুল তার বন্ধুদের নিয়ে সাদাপাথর এলাকায় বেড়াতে যায়। এসময় স্থানীয় নৌকার মাঝি তাকে লাইফ জ্যাকেট দিলে সেটি না পড়েই পানিতে নামে সে। প্রবল স্রোতের মাঝেও তিনি নদী পাড় হতে গেলে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসন থেকে পর্যটক নিরাপত্তায় নিয়জিত কর্মীরা তাদের বাধা দেয়। কিন্তু বাধা না মেনেই নদী পাড় হতে গিয়ে স্রোতের টানে সাথে সাথে সে পানিতে তলিয়ে যায়। কিছু সময় পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এর আগে লিডিং ইউনিভার্সিটির ছাত্রের মৃত্যুর পর পর্যটকদের লাইফ জ্যাকেট সরবরাহ করতে ও ১০ জনের বেশি লোককে নৌকায় না তুলতে পর্যটকদের বহনকারী সবগুলো নৌকার মাঝিকে উপজেলা প্রশাসন থেকে সর্তক করে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পর্যটকরা কোনো নির্দেশনা না মানায় দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের ফেইসবুক পেইজ