খাদিমপাড়া ইউনিয়ন অফিসে যুবককে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা

প্রকাশিত: ১২:১৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১, ২০১৯

খাদিমপাড়া ইউনিয়ন অফিসে যুবককে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃঃ সিলেট সদর উপজেলা ৪নং খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের অফিসে ঢুকে রাসেল নামের এক যুবক কে কুপিয়েছে রুহিত নামের এক সন্ত্রাসী ও তার বাহিনী। রবিবার (৩০) জুন দুপুর ২টায় এঘটনা ঘটে। খাদিমপাড়া ইউনিয়ন সূত্রে জানা যায় রাসেল নামের এক যুবক ইউনিয়ন অফিসে আসার সময় ইউনিয়নে প্রবেশের মুখ থেকে হঠাত করে এক যুবক তাকে তাড়া করে। তার পিছনে ভাগ্নে রুহিত এর নেতৃত্বে পাচ-ছয় জন যুবক ছুড়ি ও দেশীয় রামদাহ দিয়ে ইউনিয়ন এর অফিসের ভিতরে ঢুকে তার উপর আক্রমণ করে। এসময় রাসেল ভয়ে আতংকে ইউনিয়ন অফিসের ভিতরে ঢুকেও রক্ষা পায় নি।তার উপর আক্রমণ করে তাকে রামদাহ দিয়ে তাকে কুপিয়ে তারা পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলে রাসেল মাটিতে লুটেপড়ে। পরে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হয়। এসময় উপস্থিত অনেকেই বলেছেন যে মামার শেল্টারে তার ভাগ্নারা খাদিমপাড়ায় বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তারা প্রতিনিয়ত সন্ত্রাসী কাজ করে যাচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানাযায় রাসেল বটেশ্বর চুয়াবহর এলাকার মৃত হোসেন আলীর ছেল সে বটেশ্বর বাজারে ট্রেইলারি কাজ করে। এ বিষয়ে খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এড.আফছর আহমদ বলেন আমি ইউনিয়ন পরিষদের উপস্থিত ছিলাম না। পরিষদের কয়েকজন জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন তারা আমাকে ফোন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এমন সন্ত্রাসী নেক্কারজন ঘটনা আগে কখনো ঘঠেনি। ইউনিয়নের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্যদের নিয়ে বসে বিষয়টি দেখা হবে। এ বিষয়ে রাসেলের মা শারমীন বেগম বলেন আমার ছেলেকে মারাত্মক ভাবে কুপিয়ে আহত করা হয়। ডাক্তার বলেছে তার অবস্থা আশঙ্খাজনক। রাতে তার অপারেশন হবে।আমি আমার ছেলের উপর এমন জগন্নতম ঘটনার বিষয়ে আ

ইনি ব্যবস্থা নিব, আমি প্রশাসনের সহযোগিতা চাই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ