গৃহহীনদের জমিসহ ঘর দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন প্রধানমন্ত্রী : মন্ত্রী ইমরান

প্রকাশিত: ১২:২৫ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২১

গৃহহীনদের জমিসহ ঘর দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন প্রধানমন্ত্রী : মন্ত্রী ইমরান

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়াইনঘাট

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি বলেছেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের ভূমি পাকা ঘরসহ বাড়ি উপহার দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এটিই বিশ্বে গৃহহীন মানুষকে বিনামূল্যে ঘর করে দেওয়ার সবচেয়ে বড় কর্মসূচি। এরই ধারাবাহিকতায় গোয়াইনঘাটে আজ ঘর পাচ্ছেন আরো ২৭৩ পরিবার।মন্ত্রী বলেন,গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারাদেশে ২য় পর্যায়ে ৫৩ হাজার,৩৪০টি পরিবারে জমি ও গৃহ প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন।

মন্ত্রী জানান, মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় প্রায় ৯ লাখ মানুষকে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া চলছে। পৃথিবীতে এটিই প্রথম এবং একমাত্র ঘটনা; একসঙ্গে এতো মানুষকে জমির মালিকানা দিয়ে পাকা ঘর করে দেয়া। এটি মূলত মুজিববর্ষে গরীব ও অসহায় মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে মুজিববর্ষ ঘোষণা করে সরকার।

মুজিববর্ষে কেউ গৃহহীন থাকবে না- এ লক্ষ্য বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে আশ্রায়ন-২ প্রকল্পের অধীনে চলমান কর্মসূচির প্রথম পর্যায়ে সারাদেশে ১ম পর্যায়ে ঘর পেয়েছেন ৬৯ হাজার ৯০৪ ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবার এবং২য় পর্যায়ে পেলো আরো ৫৩ হাজার,৩৪০টি পরিবার। দেশের ভূমিহীন ও গৃহহীনদের ঘর করে দিতে এখন পর্যন্ত প্রায় ৯ লাখ পরিবারকে তালিকাভূক্ত করেছে শেখ হাসিনা সরকার।আশ্রয়ণ প্রকল্পের উদ্দেশ্য হলো- ভূমিহীন, গৃহহীন, ছিন্ন অসহায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর পুনর্বাসন, ঋণপ্রদান ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহে সক্ষম করে তোলা এবং আয় বাড়ে এমন কার্যক্রম সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র্য দূরীকরণ।

রবিবার (২০ জুন) সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম ২য় পর্যায়ের শুভ উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, সিলেটের জেলা প্রশাসক এম,কাজী এমদাদুল ইসলাম, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইব্রাহিম, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ফারুক আহমদ,প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপির পিএ আহমেদ কবির, গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ফজলুল হক, গোয়াইনঘাটের সহকারী কমিশনার ভুমি একে,এম,নুর হোসেন নির্ঝর, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ সুলতান আলী, গোয়াইনঘাট সার্কেলর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার প্রবাস কুমার সিংহ, পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফুর রহমান লেবু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি মোঃ আসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইসমাঈল আলী মাস্টার, এসময় উপস্থিত ছিলেন, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা গোলাম আম্বিয়া কয়েছ,গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সুবাস চন্দ্র পাল ছানা,উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফিয়া বেগম, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নন্দীরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস কামরুল হাসান আমিরুল, তোয়াকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান খালেদ আহমদ, লেঙ্গুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুব আহমদ, গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাব সভাপতি এম এ মতিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদ আহমদ শামীম, গোয়াইনঘাট উপজেলা মুক্তি যোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক,উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মোঃ মুজিবুর রহমান, গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক কামরুল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাংবাদিক সুবাস দাস, গোয়াইনঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ফারুক আহমেদ, যুগ্ম আহবায়ক শাহাব উদ্দিন, আহমেদ মোস্তাকিন, আহবায়ক কমিটির সদস্য মোঃ নজরুল ইসলাম, গোলাম কিবরিয়া রাসেল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মোঃ নাছির উদ্দীন প্রমুখ।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ