গোয়াইনঘাটে সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে ধর্ষণবিরোধী বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৫:০৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৭, ২০২০

গোয়াইনঘাটে সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে ধর্ষণবিরোধী বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত
গোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে দেশব্যাপী সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। শনিবার (১৭ অক্টোবর) দেশব্যাপী ৬ হাজার ৯১২টি বিট পুলিশিং এলাকায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী এ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশের সকল বিটে একযোগে একই সময়ে শনিবার সকাল দশটায় ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে সংশ্লিষ্ট বিট এলাকার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নারী, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক, মসজিদের ইমামসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেছেন।
দেশের সামাজিক শৃঙ্খলা এবং জনগনের শান্তি ও নিরাপাত্তা নিশ্চিত করতে। ধর্ষণ, নারী ও শিশু নির্যাতনের প্রতিটি ঘটনায় অপরাধীকে আইনের আওতায় নিয়ে আসতে পেশাদারীত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনে বাংলাদেশ পুলিশের আয়োজনে। গোয়াইনঘাট উপজেলায় অনুষ্ঠিত বিট পুলিশিং সভায় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ পোষ্টার, লিফলেট, প্ল্যাকার্ড প্রদর্শনের মাধ্যমে জনসাধারণকে ধর্ষণ, শিশু ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সোচ্চারের হওয়ার পাশা-পাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে একযোগে ১০টি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার সকাল ১০টায় গোয়াইনঘাট সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ নজরুল ইসলাম পিপিএম বলেছেন, পুলিশকে গণমুখী ও জনবান্ধব করার জন্য সারাদেশে একযুগে থানা পুলিশ সদস্যদের নিয়ে চালু করা হয়েছে বিট পুলিশিং কার্যক্রম। প্রতিটা ইউনিয়নে বিট পুলিশিং কার্যক্রম মনিটরিং তদারকির জন্য পুলিশ সদস্যদের সাথে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা কো-অপারেট করবে। ভৌগোলিক দূরত্ব ও সুনির্দিষ্ট কাঠামোবদ্ধ কর্মসূচির অভাবে অনেক ক্ষেত্রে জনগণ পুলিশের সেবা থেকে বঞ্চিত হয়। এজন্য পুলিশের প্রতি একটা ভ্রান্ত ধারণা তৈরি হয়।পুলিশ-জনতা সম্পর্কন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনে প্রতিটি নাগরিককে পুলিশের সেবাপ্রাপ্তির নিশ্চয়তা প্রদানের জন্য। ইউনিয়ন, ওয়ার্ড পর্যায়ে জনপ্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে পুলিশের সেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদের আদেশ অনুযায়ী প্রত্যন্ত এলাকাতে পুলিশের নিয়মিত উপস্থিতি নিশ্চিত করা। এসময় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে বসে আলোচনা পূর্বক পুলিশের সেবাকে আরোও গতিশীল করতে হবে। যেন গ্রাম্য দালালচক্র ও অপরাধীদের দৌরাত্ম্য বৃদ্ধি না পায়। শনিবার সকাল ১০টায় সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আয়োজনে সালুটিকরস্থ নন্দীরগাওঁ ইউনিয়ন ভবন মাঠে নারীর প্রতিসহিংসতা নিরসনে, আপনার পুলিশ আপনার পাশে স্লোগানকে সামনে রেখে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেছেন।সালুটিকর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর দিলীপ কান্ত নাথের সভাপতিত্বে ও গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক কামরুল হাসানের সঞ্চালনায় এসময় উপস্থিত থেক বক্তব্যে রাখেন গোয়াইনঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নন্দীরগাওঁ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস কামরুল হাসান আমিরুল, এম এ মতিন, পর্বতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ইসমত আরা, নন্দীরগাওঁ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মোঃ আব্দুল খালিক, ইউপি সদস্য আয়শা বেগম, রহিম উদ্দিন, আজির উদ্দিন, নিজাম উদ্দিন, ইব্রাহীম আলী,আপ্তাব আলী, সালুটিকর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোঃ সিরাজ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামীম আহমদ, দশগাওঁ নওয়াগাওঁ উচ্চবিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থী শেলী আক্তার, সালুটিকর ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থী গীতা রানী প্রমূখ।এছাড়াও পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নে আয়োজিত বিট পুলিশিং সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক আহমদ, পশ্চিম জাফলং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুস সালাম, গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল আহাদ।উল্লেখ্য উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে একযোগে একই সময়ে অনুষ্ঠিত বিট পুলিশিং সমাবেশে। থানা পুলিশের প্রতিটি বিটের অফিসারগন এবং ইউনিয়নের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার লোকজন ও সামাজিক রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ গ্রহণ করে দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে বিট পুলিশিং সমাবেশকে সাফল্য মণ্ডিত করেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ