গোয়াইনঘাটে ট্রিপল মার্ডার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ

প্রকাশিত: ১:০৫ অপরাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২১

গোয়াইনঘাটে ট্রিপল মার্ডার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোয়াইনঘাট :: বিছানার এক কোনায় উপুড় হয়ে পড়ে আছে তিন বছরের শিশু আনিছার লাশ। পাশেই একই কায়দায় মা আলিমা বেগমের মরদেহ। চুল খোলা। এলোমেলো বিছানা, দেয়ালের সঙ্গে ঝুলছে আকাশি রংয়ের মশারি। আলিমা বেগমের খোলা পায়ে রক্তের দাগ। মায়ের পাশেই মুমূর্ষু অবস্থায় পড়ে আছেন বাবা হিফজুর রহমান। তার গায়ের সঙ্গে লাগা অবস্থায় পড়ে আছে শিশুছেলে মিজান (৯) এর লাশ। পুরো বিছানায় ছোপ ছোপ রক্ত। ঘরের মেঝেতেও রয়েছে রক্তমাখা পায়ের ছাপ।

বুধবার (১৬ জুন) সকালে সিলেটের গোয়াইনঘাটে ঘর থেকে ছেলে-মেয়েসহ মায়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

প্রতিবেশীরা জানান, ঘুম থেকে উঠতে দেরি দেখে তারা হিফজুরের ঘরের সামনে যান। ভেতর থেকে গোঙ্গানীর শব্দ শুনে তারা দরজায় ধাক্কা দেন। এ সময় ঘরের দরজা খোলা ছিলো। ভেতরে প্রবেশ করে চার জনকেই রক্তাক্ত দেখে পুলিশ খবর দেন। খবর পেয়ে গোয়াইনঘাট থানার একদল পুলিশ গিয়ে তিন জনের লাশ উদ্ধার করে এবং গুরুতর আহত হিফজুরকে হাসপাতালে পাঠায়।

গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবদুল আহাদ এ তথ‌্য নিশ্চিত করে জানান, দা বা বটি দিয়ে কুপিয়েকে এই হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। আহত হিফজুর রহমানের শরীরেও কোপানোর দাগ রয়েছে। তার মেয়ে আনিছার মাথায় আঘাতের চিহৃ রয়েছে। তিনি জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। কী কারণে হত‌্যাকাণ্ড- তা জানা যায়নি। তবে হত‌্যাকাণ্ডের কারণ জানতে পুলিশ কাজ করছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ