গোয়াইনঘাটে দুই কলিোমটিার রাস্তা কাদা-ময়লা পানতিে একাকার, বভিন্নি পশোর হাজারো মানুষরে চরম ভোগান্তি

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০

গোয়াইনঘাটে দুই কলিোমটিার রাস্তা কাদা-ময়লা পানতিে একাকার, বভিন্নি পশোর হাজারো মানুষরে চরম ভোগান্তি

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি ::
দুই কলিোমটিার রাস্তায় কাদা-ময়লা পানতিে একাকার। দড়ে কলিোমটিার রাস্তার নইে র্কাপটেংি। বছিানো হয়ছেে ইটরে কোয়া। এখানইে থমেে আছে কাজরে গত।ি এই র্কদমাক্ত রাস্তা দয়িে চলাচলে গ্রামরে কৃষক, শক্ষর্িাথীসহ বভিন্নি পশোর হাজারো মানুষরে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছনে।
গোয়াইনঘাট উপজলোর তোয়াকুল ইউপরি সোনার বাংলা উচ্চ বদ্যিালয় সংলগ্ন প্রধান সড়ক থকেে সাবকে এমপি মরহুম এমএ হান্নানরে বীরকুলি গ্রাম। জনগুরুত্বর্পূণ এই গ্রামে প্রায় ছয় হাজার মানুষরে বসবাস। সাবকে এমপি দলিদার হোসনে সলেমি এর সময়ে দডে় কলিোমটিার রাস্তা পাকা করন করা হয়ছেলি, সাবকে এমপি মরহুম এম এ হান্নানরে বাড়ি র্পযন্ত। গ্রামরে ভতির দযি়ে আরও দুই কলিোমটিার মাটরি রাস্তার বহোল দশায় র্দুভােগরে শষে নইে। সাবকে উপজলো চযে়ারম্যান আবদুল হাকমি চৌধুরীর ঐকান্তকি প্রচষ্টোয় এই দুই কলিোমটিার মাটরি রাস্তার চারশত ষাট ফুট রাস্তায় ইট সোলংি করা হয়। বাকি রাস্তায় র্বষাকালরে এই সময়ে সামান্য বৃষ্টি হলইে রাস্তাগুলো কাদা ও ময়লা পানতিে ডুবে যায়। এতে গ্রামরে মানুষরে চলাচলরে যানবাহন, মাইক্রোবাস, প্রাইভটে কার, রোগী পরবিহনরে এ্যাম্বুলন্সে, রক্সিা-ভ্যান, অটোবাইক, মটরসাইকলে-বাইসাইকলে চালানো, এমনকি পায়ে হঁেটে চলাচল করাও কষ্টকর ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়।
স্কুল-কলজে যখন খোলা ছলি, তখন র্বষার এই সময় প্রতদিনি কৃষক ব্যবসায়ী এনজওি র্কমী, শক্ষিক, শক্ষর্িাথীরা এই রাস্তা দয়িে চলাচল করতে গয়িে কাদা-পানতিে পড়ে পোশাক ভজিয়িে বাড়ি ফরিতে হয়। এতে র্বষার সময়ে শক্ষর্িাথীরা কাদা-পানরি ভয়ে নয়িমতি স্কুল যতেে চায় না। কৃষক মাঠরে ধান ঘরে বা হাটে বক্রিি করতে নয়িে যাওয়া নয়িে বড়িম্বনায় পড়।েশাক-সবজ,ি আলু-বগেুনসহ অন্যান্য পণ্যসামগ্রীও হাট-বাজারে নয়িে যতেওে কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়।
বীরকুলী সরকারি প্রাথমকি বদ্যিালয়রে রাস্তা
এভাবইে যাওয়া আসা নয়িমতি স্কুল।েচন্তিা করতে হবে যখোনে বড়রা যতেে ভয় পায় সখোনে প্রাথমকি বদ্যিালয়রে কোমলমতি শশিুরা কভিাবে আসব!ে!প্রায় কোমলমতি স্কুল ছাত্র ছাত্রীরা স্কুলে যতেে চায় না, রাস্তায় কাদার জন্য।অনকে সময় তাদরে স্কুল ব্যাগ অভবিাবকরা কাঁধে করে নয়িে আসনে। এই অবস্থায় কোমলমতি স্কুল শক্ষর্িাথীদরে লখোপড়া মন মানসকিতা কতটুকু ঠকি থাকবে তা ববিচেনার বষিয়। সরজেমনি পরর্দিশন করে উপলব্ধি করলাম মন থকে।ে
শামস উদ্দনি আল-আজাদ সাবকে ইউপি সদস্য, মাস্টার শামসুল হক, ছাত্রনতো শখে আরফিুল ইসলাম, বশিষ্টি মুরব্বি আব্দুস সোবহান,নুর উদ্দনি, সলেমি আহমদ, আব্বাস উদ্দনি আবু সহ উনারা বলনে জনগুরুত্বর্পূণ এই রাস্তাটতিে গোয়াইনঘাট উপজলোর মধ্যে সুখ্যাতি সম্পন্ন একটি উচ্চ বদ্যিালয়, জনগুরুত্বর্পূণ মনতলা বাজার, একটি মাদ্রাসা, দুইটি প্রাথমকি বদ্যিালয় ও একটি কন্টিারর্গাডনে রয়ছে।ে কোমলমতি শক্ষর্িাথীদরে আর মসজদিে যাওয়া বৃদ্ধ মুসল্লদিরে কথা চন্তিা করে জনপ্রতনিধিদিরে কাছে আবদেন নয়িে আমরা বার বার যাই । তারা আশ্বস্ত করনে এবং বলনে ইনশাআল্লাহ আমরা গুরুত্বসহকারে দখেছি দখেবো। র্সবশষে র্বতমান উপজলো চয়োরম্যান ফারুক আহমদরে কাছে আবদেন দয়িে গলেে উনি ও বললনে দখেবনে, আশ্বস্ত করলনে, বললনে গুরুত্ব সহকারে ববিচেনা করবনে। সাবকে এমপি মরহুম এম এ হান্নানরে বাড়রি সামনে থকেে স্কুল র্পযন্ত প্রায় দুই কলিোমটিার রাস্তা।
কোমলমতি স্কুল শক্ষর্িাথীদরে ভোগান্তরি শষে নইে।রাস্তাটি কোমলমতি শশিুদরে স্কুলে যাওয়ার উপযোগী করে তোলা একান্ত আবশ্যক।
ণড়ঁ ংবহঃ
২১ যড়ঁৎং ধমড়

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ