গোয়াইনঘাটে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে সম্প্রীতি সমাবেশ

প্রকাশিত: ২:৪৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২২, ২০২১

গোয়াইনঘাটে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় ব্যক্তিবর্গের অংশগ্রহণে সম্প্রীতি সমাবেশ
 নিজস্ব প্রতিবেদক গোয়াইনঘাট
ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে প্রতিহিংসায় মোড় নিয়ে আগুনের ঘটনায় ও কুমিল্লা শহরের নানুয়াদীঘির একটি পূজামণ্ডপে কোরআন শারীফ পাওয়ার জের ধরে একদল লোক কোরআন শরীফ অবমাননার অভিযোগ তুলে পূজা মণ্ডপে হামলা ও ভাঙচুর চালায় এতে গত একসপ্তাহ ধরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মন্দির-পূজামণ্ডপ-বাড়িঘরে হামলা ও সহিংসতার সার্বিক ঘটনা নিয়ে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার সকল ধর্মীয় ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের অংশগ্রহণে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (২১অক্টোবর) সকাল ১১টায় গোয়াইনঘাট উপজেলা হলরুমে ও গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. তাহমিলুর রহমান’র সভাপতিত্বে ও সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও পূর্ব জাফলং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান লেবু, গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল চন্দ্র দেব, গোয়াইনঘাট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. ফজলুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সুভাস চন্দ্র পাল ছানা, গোয়াইনঘাট প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি মিনহাজ উদ্দিন, লাফনাউট মাদ্রাসার শায়খুল হাদিস মাওলানা মাহমুদুল হাসান রায়গড়ী, লাফনাউন মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল খালিক চাক্তা, উপজেলা কেন্দীয় মসজিদের খতিব আমিনুর রশিদ, সেন্ট পেট্রিক ক্যাথলিক চারচ পুরোহিত ফাদার রনাল্ড গ্র্যাব্রিয়েল কস্তা, গোয়াইনঘাট উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি গোপাল কৃঞ্চ দে চন্দন, সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত ভট্রাচার্জ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নিত্যানন্দ দাস নিতাই। গোয়াইনঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)পরিমল চন্দ্র দেব বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি দ্বন্দ্বের ও দাঙ্গা সৃষ্টির মূল উৎস হলো ফেইসবুক। আপনারা যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন তারা লাইক, শেয়ার, কমেন্ট ও ফলো করতে সর্তকতা অবলম্বন করবেন। কারণ ফেসবুকে ফেক আইডির মাধ্যমে এইসব গুজব সমাজে ছড়ায়। আপনাদের লাইক শেয়ার কমেন্ট এর মাধ্যমে তড়িৎ গতিতে তা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। তাই কোন কিছু সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই ও পরখ না করে গুজবে কান দেবেন না। সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি ক্ষতিগ্রস্থ হয় না,গোটা দেশ সমাজ জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়। তাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় আমাদের ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে। গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিলুর রহমান বলেন, আমরা ইসলামের বিধিবিধান ও ইসলামের সামাজিক দিক-নির্দেশনা সম্পর্কে অনেক কম বুঝি। ওলামা-মাশায়েখ, মসজিদের ইমামগণ আমাদেরকে যেরকম নির্দেশনা দেন আমরা সেই রকম মেনে চলি। তাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় ওলামা-মাশায়েখ ও ইমামগণের ভূমিকা অপরিহার্য। সমাজের সকল শ্রেণী-পেশার ধর্মের বর্ণের মানুষের সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় আলেম-ওলামা ও ইমামগণের দায়িত্ব অনেক বেশি। আপনারাই ভালো জানেন, ইসলামে সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় কি রকম নির্দেশনা রয়েছে। গোয়াইনঘাট উপজেলায় ধর্ম ও বর্ণের সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় আপনাদের গুরুদায়িত্ব পালন করতে হবে। সর্বমহলে গোয়াইনঘাট উপজেলার সুনাম অক্ষুণ্ন রাখতে সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় আলেম-ওলামাগণ এর পাশাপাশি আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। ধর্মে বর্ণে বৈচিত্র্য থাকলেও মানুষ হিসাবে আমরা সবাই এক। সম্প্রীতি সমাবেশের সময়পোযোগী এই উদ্যোগ গ্রহণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিলুর রহমান’র প্রতি উপজেলার সচেতন মহল ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। বর্তমান সময়ের এই উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ