চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের এক যুগ পূর্তি অনুষ্ঠান সম্পন্ন

প্রকাশিত: ১১:৩০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০২০

চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের এক যুগ পূর্তি অনুষ্ঠান সম্পন্ন

সিল-নিউজ বিডি-ডেস্ক :: সিলেটের ছবি আঁকার সৃজনশীল প্রতিষ্ঠান চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের এক যুগ পূর্তি অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) নগরীর পশ্চিম সুবিদ বাজারস্ত আনন্দনিকেতন স্কুলে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

সম্মানিত অতিথি হিসেবে সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. মশিউর রহমান, এনডিসি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. মজিদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে ৪ দিনব্যাপী চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রদর্শিত ৬৫০টি চিত্রকর্মের মধ্য থেকে নির্বাচিত সেরা ৫টি চিত্রকর্মে জয়নুল আবেদীন পদক দেওয়া হয়।সেইসাথে ৫টি গ্রুপে ১৫ জনকে চারুপাঠ পদক প্রদান করা হয়।

জয়নুল আবেদীন পদক প্রাপ্তরা হলেন-চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আফিফ মাসরুর হোসাইন ও নাহিয়া ইসলাম নওশীন, সপ্তম বর্ষের ফারহানা ইসলাম এবং তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার সেজি ও নভোনিলা রায় গুনগুনকে।

রবিবার সিলেট সহরের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চার শতাধিক শিশু কিশোরদের জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিরাপদ সড়ক চাই বিষয়ক শব্দদূষণ, ট্রাফিকজ্যাম, সড়ক দুর্ঘটনা, ট্রাফিক আইন মেলে চলার দৃশ্য, সচেতনতামূলক মানববন্ধন, ফ্লাইওভার, মডেল টাউনসহ সর্বোপরি একটি সুশৃঙ্খল সুন্দর বাংলাদেশের উপর ৪টি গ্রুপে অনুষ্ঠিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ২০ জন পদক ও সনদ প্রদান করা হয়। তাছাড়াও বেস্ট স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার ২০১৮ এর ৬জন এবং ২০১৯ এর ৮ জনকে পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ছবি আঁকার মাধ্যমে শিশু কিশোরদের মননশীলতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে চারুপাঠ যে কাজ  যাচ্ছে তা খুবই সুন্দর এবং গুরুত্বপূর্ণ। শিশুরা এর মাধ্যমেই তাদের মনের সুপ্ত প্রতিভাকে জাগ্রত করবে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে এ প্রত্যাশা করে তিনি চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের সকলের প্রতি শুভকামনা জ্ঞাপন করেন।

সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মো. মশিউর রহমান এনডিসি বলেন, চারুপাঠের এ উদ্যোগ সত্যিই খুবই প্রশংসনীয়। তিনি চারুপাঠকে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে গড়ে তুলতে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. মজিদুল ইসলাম শিশুদের মেধা বিকাশে চারুপাঠের চিত্রাঙ্কন কর্মকাণ্ড পরিচালনা সহ-শিক্ষার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। আনন্দনিকেতন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হেরল্ড রশিদ চারুপাঠ যেভাবে চিত্রশিল্পী সৃষ্টি করছে তা একদিন শিশুদের সৃজনশীলতা তৈরির মাধ্যমে বাংলাদেশের সুনাম বয়ে আনার গৌরব অর্জন করতে সক্ষম হবে।

চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও চেয়ারম্যান মার্জিয়া হোসাইন পপির সভাপতিত্বে এতে স্বাগত বক্তব্য দেন চারুপাঠের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক প্রশান্ত কুমার দাস। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন চারুপাঠের শিক্ষক ডলি দে। অনুষ্ঠানে আনন্দনিকেতন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক হেরল্ড রশিদ, প্রশাসনিক প্রধান ফাহমিনা নাহাস, চারুপাঠ চারুবিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক  ও অন্যান্য অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সর্বশেষ খবর

আমাদের ফেইসবুক পেইজ