চীন সীমান্তে অস্ত্র পরিচালনায় ভারতীয় বাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা

প্রকাশিত: ৯:৩০ অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০২০

চীন সীমান্তে অস্ত্র পরিচালনায় ভারতীয় বাহিনীকে পূর্ণ স্বাধীনতা

অনলাইন ডেস্ক :; লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে সংঘর্ষের পর চীনা সেনাদের জবাব দিতে তিন বাহিনীকেই ‘পূর্ণ স্বাধীনতা’ দিয়েছে ভারত।

শুধু লাদাখ বা গলওয়ান উপত্যকা নয়, ভারত-চীন সীমান্তের পুরো এলাকাতেই তিন বাহিনীকে এই কড়া অবস্থান নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়, রোববার চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ (সিডিএস) বিপিন রাওয়াতসহ তিন বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গে বৈঠকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ এমনই বার্তা দিয়েছেন বলে সেনা সূত্র জানিয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, চীনের সঙ্গে পুরো সীমান্ত এলাকাতেই জল, স্থল ও আকাশে তীক্ষ্ণ নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী। পাশাপাশি চীনা সেনাদের গতিবিধিও নখদর্পণে রাখার কথা বলেছেন তিনি।

কড়া বার্তা দিয়ে বলেছেন, চীনের তরফে কোনো রকম আগ্রাসনের মনোভাব বুঝতে পারলেই তার উপযুক্ত জবাব দিতে হবে। সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রেও সেনাদের পূর্ণ স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে বৈঠক সূত্রে।

প্যাংগং সো-তে গত মাসের ৫-৬ তারিখ ও গালওয়ান উপত্যকায় ১৫ জুন সংঘর্ষ হয়। প্রতিবারই দল বেঁধে ডাণ্ডা ও লোহার আংটা লাগানো রড নিয়ে ভারতীয় জওয়ানদের তাড়া করেছিল চীনা বাহিনী।

লাদাখের গালওয়ান সীমান্তে সংঘর্ষের পর ভারত ও চীনের মধ্যে সম্পর্কে গুরুতর অবনতি ঘটেছে। প্রতিবেশী পারমাণবিক শক্তিধর দুই দেশ ক্রমেই যুদ্ধ পরিস্থিতির দিকে যাচ্ছে।

১৫ জুন মধ্যরাতে চীনা সেনাদের হামলায় ২০ ভারতীয় সেনা নিহতের ঘটনায় সীমান্তে চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। দুই দেশই সীমান্তে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করছে।

লাদাখের আকাশে উড়তে শুরু করেছে যুদ্ধবিমান, হেলিকপ্টার। সীমান্তে ঘাঁটি গেড়ে বসেছে চীনের সেনাবাহিনী। ভারতীয় সেনাবাহিনীও তোড়জোড় শুরু করেছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728     
       
28      
       
       
       
1234567
2930     
       

আমাদের ফেইসবুক পেইজ