ছাতকের সুরমা নদীকে চাঁদাবাজ মুক্ত করতে ছাতক থানা পুলিশের মাইকিং

প্রকাশিত: ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০

ছাতকের সুরমা নদীকে চাঁদাবাজ মুক্ত করতে  ছাতক থানা পুলিশের মাইকিং

ছাতক(সুনামগঞ্জ)প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের ছাতকে সুরমা নদীতে নৌ-পথে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে এলাকাজুড়ে মাইকিং করেছে ছাতক থানা পুলিশ। রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টা থেকে বিকেল পর্যন্ত নদীতে নৌকা চড়ে মাইকিং করেন ছাতক থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সঞ্জুর মোর্শেদ শাহিন। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন ছাতক থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই হাবিবুর রহমান পিপিএম ও এএসআই জয়নাল আবেদীন।ছাতক ও দোয়ারাবাজার উপজেলার শেষ সীমানার নৌ-পথের ১০টি পয়েন্টে ও ছাতক পৌর এলাকার সুরমা নদীতে ৩০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে প্রায় কয়েক ঘণ্টাব্যাপী এ মাইকিং চলে। ছাতক থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ আহমেদ সঞ্জুর মোর্শেদ শাহিন বলেন, ছাতক উপজেলার পারকুল এলাকা থেকে বৌলা পর্যন্ত মাইকিং করে নৌ-পথে চাঁদাবাজরা যেন চাঁদাবাজির জন্য নদীতে যাতে না নামে।এরুটে চলাচলকারী বালিপাথর বহনকারী বাল্কহেড, স্টিলবডি নৌকাসহ সব নৌযান চালক ও নৌকার মালিকদের চাঁদা না দেয়ার আহ্বান জানান তিনি। এছাড়া যদি কেউ নৌপথে জোরপূর্বক চাঁদাবাজি করতে চায়, তাহলে বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে জানানোর অনুরোধ করা হয়েছে বলেও জানান। তিনি আর বলেন নৌপথে চাঁদাবাজির মদদ দাতাদের প্রতি পুলিশ কঠোর বার্তা দিয়েছে। যে কেউ নৌপথে চাঁদাবাজি করলে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ অ্যাকশনে যাবে বলেন তিনি আশ্বাস দেন। ছাতক উপজেলার সুরমা নদী দিয়ে প্রতিদিন শতাধিক বালি পাথর বোঝাই নৌযান দেশের বিভিন্ন স্থানে বালি পাথর পরিবহন করে থাকে। এ সময় প্রভাবশালীদের মদদে চলাচলকারী নৌযান থেকে মোটা দাগে চাঁদা আদায় করে আসছে স্থানীয় প্রভাবশালী চাঁদাবাজরা। ছাতক উপজেলার সুরমা নদীর এলাকাজুড়ে চাঁদাবাজমুক্ত করতে ছাতক থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জের আহবান। ##

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ