ছাতকের সৈদেরগাঁও গ্রামে চলাচলের জন্য বাঁশের সাকোই ভরসা

প্রকাশিত: ৯:৩১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩, ২০২০

ছাতকের সৈদেরগাঁও গ্রামে চলাচলের জন্য বাঁশের সাকোই ভরসা

ছাতক(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ::
ছাতকের সিংচাপইড় ইউনিয়নের সৈদেরগাঁও গ্রামের সাধারণ মানুষের চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে বাঁশের সাঁকো। বর্ষায় গ্রামের এক বাড়ী থেকে অন্য বাড়ী যেতে এবং রাস্তায় উঠতে বাঁশের সাকো ও নৌকাই ভরসা। প্রায় দু’শ পরিবারে হাজারো লোকের বসবাস এ গ্রামে। গ্রামের মানুষ যুগ যুগ ধরে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বাশেঁর সাঁকো ও নৌকা দিয়ে চলাচল করেন। কৃষক, ব্যবসায়ী, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণী- পেশার মানুষ বর্ষায় সাকো ও নৌকা দিয়েই যাতায়াত করছেন। গ্রামের লোকজন জানান সৈদেরগাও গ্রামের মধ্য দিয়ে দক্ষিণ খুরমা-সিংচাপইড় দুটি ইউনিয়নের কয়েক গ্রামের জনসাধারন হাট-বাজারে চলাচল করেন। বর্তমানে বন্যায় কবলিত হয়ে পড়েছে গ্রামটি। এ গ্রামের বাড়ী বাড়ী রয়েছে বাঁশের সাকো। ইউনিয়নের কোনো গ্রামে এতো বাঁশের সাকো নেই। বর্ষায় গ্রামের কোনো লোক অসুস্থ হয়ে পড়লে নৌকা অথবা কাঁধে করে নিয়ে যেতে হয় প্রায় ২ থেকে ৩ কিলোমিটার রাস্তা। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় ঐ পরিবারকে। জাউয়া-সিরাজগঞ্জ রাস্তার সিংচাপইড় মেইন রাস্তা হতে গ্রাম পর্যন্ত রাস্তাটি অনেক দিন ধরে আধাপাকা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এ রাস্তাটি সংস্কার হলে গ্রামবাসীর দূর্ভোগ কিছুটা হলেও লাঘব হবে। গ্রামের পশ্চিম পাড়ে মসজিদের পাশে ৩৬০ আউলিয়ার অন্যতম সৈয়দ ইউসুফ শাহ (রহঃ) এর মাজার, তিনটি মসজিদ, একটি মাদ্রাসা ও একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এসব প্রতষ্ঠানে যেতে শিক্ষার্থীদের সাকো দিয়েই যেতে হচ্ছে। গ্রামের ভিতরে কোনো পাকা সড়ক নেই। একটি পাকা সড়ক নির্মিত হলে গ্রামবাসী উপকৃত হবেন। গ্রামের মধ্য দিয়ে হারার খালে এপার ওপার হওয়ার জন্য গ্রামের বাসিন্দা শিল্পপতি ইঞ্জিনিয়ার সৈয়দ মুনসিফ আলী’র অর্থায়নে অনেক আগে একটি ব্রিজ নির্মান করা হয়। ব্রিজের এপ্রোচ সহ আশপাশ রাস্তার কোনোধরনের সংস্কার নেই। যাতায়াতের ব্যাপারে এ গ্রামের দিকে নজর দিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন গ্রামের বাসিন্দারা।##

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ