ছাতক সিমেন্ট কোম্পানির কাছে বকেয়া ৩১ কোটি টাকার গ্যাস বিল পাওনা সংযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত: ৬:৪৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১

ছাতক সিমেন্ট কোম্পানির কাছে বকেয়া ৩১ কোটি টাকার গ্যাস বিল পাওনা সংযোগ বিচ্ছিন্ন

সেলিম মাহবুব, ছাতক
ছাতক সিমেন্ট কোম্পানির গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ। একদিকে কিলন বিকলের কারণে সিমেন্ট কোম্পানিতে উৎপাদন বন্ধ রয়েছে আজ এক সপ্তাহ ধরে। অন্যদিকে জালালাবাদ গ্যাস কর্তৃপক্ষ সোমবার বকেয়া গ্যাস বিলের কারণে সিমেন্ট কোম্পানির বাণিজ্যিক ও আবাসিক গ্যাস সংযোগ সব বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। একাধিকবার বিল পরিশোধের জন্য নোটিশ দেয়ার পরেও কর্তৃপক্ষ তা আমলে না নিয়ে কোম্পানির কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। কোন উপায় না পেয়ে জালালাবাদ গ্যাস উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে প্রায় ৩১ কোটি টাকা গ্যাস বিল বকেয়া থাকার কারণে সোমবার বিসিআইসি’র এ প্রতিষ্ঠানের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। ছাতক সিমেন্ট কোম্পানীর এক কর্মকর্তা জানান, জালালাবাদ কর্তৃপক্ষ বকেয়া বিল পরিশোধের জন্যে সিমেন্ট কোম্পানিকে বারবার লিখিত তাগিদ দিয়ে আসছিল। এতে টনক নড়েনি সিমেন্ট কোম্পানি কর্তৃপক্ষের। গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ায় কোম্পানির উৎপাদন দীর্ঘদিনের জন্য বন্ধ হয়ে যাবার পাশাপাশি চরম দূর্ভোগে পড়েছে আবাসিক এলাকার চাকুরিজীবী বাসিন্দারা। রান্না করতে না পারায় অনেকে বাজার থেকে খাবার সংগ্রহ করছেন। কেউবা আবার কারখানার বাইরে প্রতিবেশীদের চুলোয় হাড়ি চড়িয়েছেন। এমন সংকটে আগে কখনো পড়েননি বলে জানিয়েছেন তারা। শ্রমিকদের অভিযোগ, কোম্পানি ম্যানেজমেন্টের গাফিলতির কারণেই এহেন দূর্ভোগে পড়েছেন তারা। শ্রমিকরাই কোম্পানির বাণিজ্যিক ও আবাসিক গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। সোমবার সকালে গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নের ঘটনা নিয়ে ব্যাপক লুকোচুরি করেছে জালালাবাদ গ্যাস ও সিমেন্ট কারখানা কর্তৃপক্ষ। জালালাবাদ গ্যাসের ছাতকস্থ উপ-ব্যবস্থাপক শরীফুল হক, ম্যানেজার বিপ্লব বিশ্বাস এ ব্যাপারে মুখ খুলতে নারাজ। জালালাবাদ গ্যাসের ব্যবস্থাপক (এমআইএস) শফিউল আলম সরকার জানান, কারখানার গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার খবর তিনি শুনেছেন। তার কাছে এ বিষয়ে দাপ্তরিক কোন রিপোর্ট পৌঁছায়নি। জালালাবাদ গ্যাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হারুন অর রশীদ মোল্লা ও মহা ব্যবস্থাপক (বিপণন উত্তর) শামসুল আলম শাহীনের সাথে একাধিকবার মোবাইলফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তারা ফোন রিসিভ করেন নি। সিমেন্ট কোম্পানির জিএম (উৎপাদন) অমল কৃষ্ণ বিশ্বাস গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নর বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেন নি। জানা গেছে দিনব্যাপী জালালাবাদ গ্যাস ও সিমেন্ট কোম্পানি কর্তৃপক্ষের মধ্যে বিভিন্ন রফা-দফা হয়েছিল কিন্তু কোন উপায় হয় নি। গোপনীয় এসব রফা-দফায় কোনো সমঝোতায় পৌছাতে পারেন নি তারা। রাতে সিমেন্ট কোম্পানির গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্নের বিষয় স্বীকার করে কোম্পানির এমডি প্রকৌশলী এএফএম আব্দুল বারী জানান, গ্যাস বিল পরিশোধ করে দু-এক দিনের মধ্যে সংযোগের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।##

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ