ছাত্রলীগ অপরাধী হলে অপরাধীদের গডফাদার এই দেশের সুশীল সমাজ আর কিছু হলুদ সাংবাদিকরা

প্রকাশিত: ২:১৭ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

ছাত্রলীগ অপরাধী হলে অপরাধীদের গডফাদার এই দেশের সুশীল সমাজ আর কিছু হলুদ সাংবাদিকরা

ইশতিয়াক চৌধুরী :; হে সুশীল আর হলুদ সাংবাদিকবৃন্দ একজন সাধারণ মানুষের জীবন নষ্ট করে দিতে কেন আপনারা এত আনন্দ পান?
কেন সত্য মিথ্যা যাচাই বাচাই না করে, কেন আসামীপক্ষের কুনু মন্তব্য না নিয়ে একতরফা মিথ্যা তথ্যর উপর নিউজ চাপিয়ে আমাদের এবং আমাদের পরিবারকে অপমানিত করেন??
কেন মিথ্যা তথ্যর ভিত্তিতে নাটকীয় নিউজ চাপিয়ে আমাদের সমাজের চোখে সন্ত্রাসী,,অস্ত্রবাজ,, চাঁদাবাজ,, মাদকব্যবসায়ী বানিয়ে আপনারা রমরমা নিউজ ব্যবসা করেন?

ইনকাম করবেন দু:খ নাই, কিন্তু আপনারা দুই পয়সা ইনকাম এর আশায় যে একটি নিরঅপরাধ মানুষ কে অপরাধী বানিয়ে তার ভবিষ্যৎ নষ্ট করেন, তার জীবনের হাজার সপ্ন ভেংগে দেন তা কি কখন ভেবে দেখেছেন??

আমরা ছাত্রলীগ কর্মীরা কি ক্ষতি করেছি আপনাদের??
রাজনীতি করি বলে কি আমরা মানুষ না??

কেন দুই টাকাতে লোভ করে একজন সাধারন মানুষের জীবন নষ্ট করে দেন???
আপনাদের পরিবারের কাউকে যদি এভাবে মিথ্যা অভিযোগে বিপদে ফেলে কিছু অসাধু প্রশাসন এর দালালরা ধরে নিয়ে গিয়ে ছবি তুলে অপরাধী বানিয়ে ছবি দিত, তখন কি পারতেন সেই মিথ্যা নিউজ টা সত্য মিথ্যা যাচাই বাচাই না করে ছাপাতে??
পারতেন তখন নিউজ টা দিয়ে ব্যবসা করতে??
পারতেন আপনার ছেলে বা ভাই কে এভাবে মিথ্যা অভিযোগে বিপদে ফেলে জেলে ঢুকিয়ে দিতে???

যখন আপনারা প্রতিষ্টিত হয়ে বাবা, মা,স্ত্রী,সন্তান নিয়ে উমরা হজ্বে যাচ্ছেন, গাড়ি বাড়ি নিয়ে আরাম আয়েশ থাকছেন, , যখন প্রিয়তমা কে বেলি ফুল এর মালা পরিয়ে পার্কে বসে চোখে চোখ রেখে ঘর বাধার সপ্ন দেখছেন, তখন আপনাদের কলম এর কুছায় আর সুশীলদের নাটকীয় রসালো মন্তব্য কারনে মিথ্যা মামলা আমরা আটক হয়ে জেলে যেতে হয় তখন আমাদের বৃদ্ধ বাবা বিশ্রামের বদলে চোখের পানি ঝড়াতে ঝড়াতে কোর্টে আমাদের জামিন এর জন্য ফাইল হাতে দৌরাতে দৌরাতে অসুস্থ হতে হয়।আমাদের মা কে আমাদের চিন্তায় মৃত্যুসজ্জায় চলে যেতে হয়,,ভেংগে যায় অনিশ্চিত জীবন এর সাথে প্রিয়তমার ঘর বাধার এবং সুন্দর একটি জীবনের হাজারো সপ্ন।সপ্ন ভাংগার জ্বালায় সারাটি জীবন আমাদের কাটাতে হয় জীবন্ত লাশ হয়ে।

কিন্তু মনে রাখবেন আপনার বিপদের সময় এই খারাপ ছেলেগুলো পিছ পা হয় না জীবন দিয়ে হলেও চেষ্টা করে আপনার উপকার করার।

আপনার পরিবারের কার রক্তের প্রোয়জন হলে এই খারাপ ছেলেগুলোই আপনাদের রক্তের ব্যবস্থা করে দিতে সাহায্য করে।

এই খারাপ ছেলেরাই আপনার মে বা বোন যখন কোন বখাটের হাতে ইভটিজিং শিকার হয় তখন সেই ইভটিজারদের হাত থেকে রক্ষা করে।।

এই খারাপ ছেলে গুলাই আপনার সন্তানদের কলেজ স্কুল এ ভর্তির করতে সাহায্য করে।

এই খারাপ ছেলে গুলাই আপনি বেকার থাকায় আপনার পরিবার অর্থ কষ্টে ভোগছে তখন নেতাদের হাতে পায়ে ধরে আপনাদের চাকরির একটা ব্যবস্থা করে দেয়।

এই খারাপ ছেলেগুলাই যখন আপনি বা আপনার পরিবারের কার কুনু বড় রোগে আক্রান্ত তখন টাকার জন্য অপারেশ এর সম্যসা তখন আপনার জন্য বক্স হাতে রাস্তায় নেমে মানুষের অনেক অপমান সহ্য করেও সেই খারাপ ছেলিটি সাহয্য তুলে আপনার হাতে হাসি মুখে অপারেশ এর টাকা তুলে দেয়।

যখন আপনার পরিবারের কাউকে মিথ্যা অভিযোগে আটক করা হয় তখন এই খারাপ ছেলে গুলাই বিভিন্ন নেতা আর থানার ওসির হাতে পায়ে ধরে থানা থেকে উদ্ধার করে আনে।

এই উপকার গুলাই আমরা ছাত্রলীগ এর কর্মীদের অপরাধ আপনাদের এই উপকার করতে গিয়েই আর অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়েই আজ আমরা সমাজের চোখে অপরাধী,হা আমরা অনেক বড় অপরাধী।

তাইত উপকারের
বিনিময়ে আপনারা মিথ্যা বানোয়াট তথ্যর ভিত্তিতে সত্য, মিথ্যা যাচাই বাচাই না করে আপনারা আমাদের সমাজের চোখে বানিয়ে দেন সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, অস্ত্রবাজ, মাদকব্যবসায়ী নষ্ট করে দেন আমাদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করে দেন সুন্দর একটি জীবন এর হাজারো সপ্ন।

বিশ্বাস করুন প্রায় ৫০ ভাগ নিরঅপরাধ মানুষ আজ আপনাদের কলমের খুচায় আর মেরুদন্ডহীন সুশিল দের নাটকীয় ভূমিকায় মিথ্যা পাপের বুঝা নিয়ে জেল খাটছে।

একটা নিরঅপরাধ মানুষ কে অপরাধী কে বানায়??
একজন অপরাধী কে সৃষ্টি করে???
আপনারা হে আপনারা
এই সমাজ এর মেরুদন্ডহীন সুশীল আর সাংবাদিক লেবাসধারী কিছু নিউজ ব্যবসায়ী হলুদ সাংবাদিকরা।

তাই বলছি আজ যদি নিরঅপরাধ থাকার পরো আমরা সমাজ এর চোখে অপরাধী হই তাহলে অপরাধীদের গডফাদা হলেন এই দেশের মেরুদন্ডহীন সুশীল আর সাংবাদিক লেবাসধারী কিছু নিউজ ব্যবসায়ী হলুদ সাংবাদিকরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ