জকিগঞ্জে মেয়র পদের ফলাফল স্থগিত

প্রকাশিত: ৭:৪২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২১

জকিগঞ্জে মেয়র পদের ফলাফল স্থগিত

 

অনলাইন ডেস্ক :: জকিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদের ফলাফল ও গেজেট স্থগিত করে আগামী ১ মাসের মধ্যে ভোট পুনরায় গণনার আদেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবি আব্দুল হালিম কাফি। পৌরসভার ৪ টি ওয়ার্ডে ভোটের বিভিন্ন অসঙ্গতি তুলে ধরে মেয়র পদের ফলাফল ও গেজেট স্থগিত চেয়ে আদালতে আবেদন করেন আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ফারুক আহমদ। তার আবেদেনের প্রেক্ষিতে আদালত তা আমলে নিয়ে ১ মাসের মধ্যে ভোট পুনরায় গননার আদেশ দেন।

উল্লেখ্য গত ৩০ জানুয়ারী অনুষ্টিত জকিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে যুবলীগের বহিস্কৃত আহবায়ক আব্দুল আহাদ ২০৮৩ ভোট পান তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী ফারুক আহমদ পান ২০৮১ ভোট এই ফলাফল প্রত্যাখান করে পুনরায় ভোট গননা চান ফারুক আহমদ।এনিয়ে রিটানিং কর্মকর্তার বরাবরেও চিঠি দেন তিনি।

আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ফারুক আহমদের আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ১৪ ফেব্রুয়ারী বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো.কামরুল হাসান মোল্লা এ আদেশ দেন।একটি নির্ভরযোগ্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

ফারুক আহমদ জানিয়েছেন, মহামান্য হাইকোর্টের বেঞ্চ ফলাফল ও গেজেট স্থগিত করে আগামী ১মাসের মধ্যে পুনরায় ভোট গণনার নির্দেশ দিয়েছেন। যথাযথ কর্তৃপক্ষ আদালতের আদেশ অনুযায়ী গননা করলে তিনি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন। তিনি অভিযোগ করে বলেন, তার জগ মার্কার ভোট অন্য মার্কার বান্ডিলে ঢুকানো হয়েছে। অন্য প্রার্থীর নষ্ট ভোটকে বাতিল না করে গননায় রাখা হয়েছে।

এমন অভিযোগে বেশ কয়েকটি সেন্টারে তার এজেন্টরা স্বাক্ষর পর্যন্ত করেননি। এজেন্টরা বাতিল ভোট গণনা করতে বাঁধা দিয়েছিলেন কিন্তু উদ্দেশ্যমূলকভাবে তা গননা করা হয়েছে। নির্বাচনে স্বচ্ছতা ছিলো না। সাংবাদিকরা ভোট গননা দেখার অনুমতি নির্বাচন কমিশন দিয়ে থাকলেও কয়েকটি ভোট কেন্দ্রে সাংবাদিকদের ভোট গননা দেখতেও দেয়া হয়নি। সাংবাদিকদের সরিয়ে ভোট গণনায় কারচুপি ও অনিয়ম করা হয়েছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ