জগন্নাথপুরে আরো ৩জনের শরিরে করোনা পজেটিভ: মোট আক্রান্ত ২৮

প্রকাশিত: ৮:১৫ অপরাহ্ণ, জুন ১১, ২০২০

জগন্নাথপুরে আরো ৩জনের শরিরে করোনা পজেটিভ: মোট আক্রান্ত ২৮

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি:: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জগন্নাথপুরে ২৮ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন। তার মধ্যে ৮ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। ১ সিলেট শহীদ সামসুউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ও ১ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ আইসোলেশন সেন্টারে রয়েছেন। নতুন ৩জন সহ মোট ১৮ জন হোম আইসোলেশন রয়েছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে (১০জুন) সিলেট শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাব থেকে প্রকাশিত কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্টে জগন্নাথপুর উপজেলায় আরও ৩ জন ব্যাক্তি পজেটিভ সনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ১ জন জগন্নাথপুর পৌরসভার কেশবপুর গ্রামের, ১ জন কলকলিয়া ইউনিয়নের খাশিলা গ্রামের এবং ১ জন রানীগঞ্জ ইউনিয়নের শিবগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার (১১জুন) দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. ওমর ফারুক এর নেতৃত্বে একটি মেডিকেল টীম প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে আক্রান্ত ব্যক্তিদেরকে হোম আইসোলেশনে রাখেন এবং চিকিৎসা সহ পরবর্তী স্বাস্থ্যবার্তা প্রদান করেন। এছাড়াও আক্রান্ত পরিবারের সবাইকে শতভাগ হোম কোয়ারান্টাইনে থাকা নিশ্চিতকরন সহ আশেপাশের বাড়িগুলোকে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থা অবলম্বন করার জন্য কঠোর নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

এ সময় জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলার মো. তাজিবুর রহমান, রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ওয়ার্ড মেম্বার মো: আব্দুল জলিল ও মিলাদ মিয়া, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিনয় কৃষ্ণ চক্রবর্তী ও মো. আব্দুল জলিল, স্বাস্থ্য সহকারী শংকর জ্যেতি দে, মো. আব্দুল মুকিত ও সঞ্জয় আচার্য,খাশিলা গ্রামের স্বেচ্ছাসেবক টীমের সদস্য মো: আব্দুল কাহার,মো:আখতার হোসেন,সুহেল মিয়া ,ধন মিয়া,এবং এম্বুলেন্স চালক প্রাণেশ চন্দ্র দাস সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.মধু সুধন ধর জানান, উপজেলায় এখন পর্যন্ত সর্বমোট ২৮ জন ব্যক্তি ‘কোভিড-১৯’ পজেটিভ হয়েছেন। এর মধ্যে ৮ জন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরেছেন, ১ জন সিলেট কোভিড হাসপাতালে, ১ জন জগন্নাথপুর হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে এবং ১৮ জন নিজেদের বাড়িতে হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসাধীন আছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ