জগন্নাথপুরে জোরপূর্বক তিন সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৩:২৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২০

জগন্নাথপুরে জোরপূর্বক তিন সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের গোতগাঁও গ্রামের দিনমজুরের স্ত্রী ও তিন সন্তানের জননীকে জোর পুর্বক দফায় দফায় ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করেছেন নির্যাতিতা নারী। সোমবার সকালে জগন্নাথপুর থানায় এ অভিযোগ দায়ের করা করেন নির্যাতিতা নারী।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, গুতগাও গ্রামের মৃত আব্দুর রবের ছেলে আব্দুল খলিছ নির্যাতিতার প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে গত ৯ মাস ধরে ৩ সন্তানের এক জননী কে অবৈধ প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলো। কিন্তু নির্যাতিতা জননী খলিছের প্রস্তাবে ভিকটিম মহিলা সাড়া না দেয়ায় গত ৩ এপ্রিল শুক্রবার রাত ১০টায় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে ঘর হতে বাহির হলে ওৎপেতে থাকা সন্ত্রাসী খালিছ ভিকটিমকে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। লোকলজ্জার ভয়ে ও সন্তানদের মান সম্মানের কথা চিন্তা করে ধর্ষনকারীর শারীরিক অত্যাচার ও যৌন উৎপীড়ন নীরবে সহ্য করে যায় ভিকটিম।

অভিযোগে আরো জানান সর্বশেষ গত ৯ অক্টোবর রাতে আব্দুল খালিছ নির্যাতিতার ঘরে ডুকে তার স্বামীকে চুরি ধরে নির্যাতিতাকে ঘরের বাইরে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে নির্যাতিতা ঐ নারী স্থানীয়দের জানালে তারা আইনের আশ্রয় নিতে বলেন।

অভিযুক্ত আব্দুল খালিছ হত্যা ও ডাকাতির বিভিন্ন মামলার আসামি। এর আগেও নবীগঞ্জ থানার লালপুর গ্রামে ডাকাতির ঘটনায় স্থানীয় গোবলার বাজার থেকে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ।

জগন্নাথপুর থানা ওসি মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন বলেন,আমরা ভিকটিমের দায়েরকৃত অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য এসআই ফিরোজ আহমদকে দায়িত্ব দিয়েছি। ঘটনার তদন্ত চলছে।এখনো কাউকে আটক করা হয় নি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

আমাদের ফেইসবুক পেইজ