জননেতা আজাদের অনুপ্রেরণায় “মানবসেবায়” সারোয়ার

প্রকাশিত: ৪:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৬, ২০২১

জননেতা আজাদের অনুপ্রেরণায় “মানবসেবায়” সারোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ ও কাউন্সিলর জননেতা আজাদুর রহমান আজাদের অনুপ্রেরণায় করোনাভাইরাস শুরু থেকে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সকাল থেকে মাঝরাত পর্যন্ত কাজ করে যাচ্ছেন সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সদস্য, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ও মহানগর যুবলীগ নেতা সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী। প্রতিদিন নতুন নতুন উদ্যোগ আর সাহায্য সহযোগিতায় তাকে পাশে পাচ্ছেন সিলেটবাসী। এসব উদ্যোগের কারণে সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী সবার কাছে ‘মানবতার ফেরিওয়ালা’ হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। বেড়েছে সক্রমণের হার। থামছে না মৃত্যুর মিছিল। সংক্রমণ রোধে কড়া বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার। জনসমাগম আটকাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ।লকডাউনে যেখানেই খাদ্য সংকট সেখানেই ত্রাণ সহায়তা নিয়ে হাজির হচ্ছে যুবলীগ এ নেতা। শুরু থেকেই লকডাউনে আটকে পড়া সাধারণ মানুষের ভালোমন্দের খোঁজ খবর নিচ্ছেন। প্রয়োজনে নিজের সাধ্য মত বাড়িয়ে দিচ্ছেন সাহায্যের হাত। জনসাধারণের পাশে থেকে ক্লান্তিহীন কাজ করে যাচ্ছে মানবতার এ ফেরিওয়ালা যুবলীগ নেতা সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী। প্রয়োজনে জরুরী টেলিমেডিসিন সার্ভিস সহ সকল ওয়ার্ডের মসজিদ-মন্দিরে করোনা সুরক্ষা সামগ্রী মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদান করে চলছেন ।

মানবতার ফেরিওয়ালা সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী দেখছে সিলেট জেলা ও দেশবাসী। শুধু লকডাউনে নয়; পুরো করোনাকালে সেবা দিয়ে মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী।ব্যতিক্রমী বিভিন্ন মানবিক কাজে প্রশংসায় ভাসছে এ নেতা। সেবা নিয়ে প্রতিনিয়তই ছুটছে  ওয়ার্ড পর্যায়ের সাধারণ মানুষের কাছে। এ যেন এক ব্যতিক্রমী যুবলীগ নেতাকে দেখছে সিলেটবাসী। এর আগে, রমজানে মাসব্যাপী সেহরী ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ। ঈদে নতুন কাপড় বিতরণ। বৃদ্ধদের শাড়ি লুঙ্গি বিতরণ। গরিব অসহায় শতাধিক পরিবারের মাঝে এক মাসের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী বিতরণ। ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা দিয়েছেন।

সারোয়ার হোসেইন চৌধুরী কাছে জানতে চাইলে আমাদের বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ এবং আমার রাজনৈতিক অভিবাবক জননেতা কাউন্সিলর আজাদের অনুপ্রেরণায় অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানো আমার কর্তব্য। করোনাযুদ্ধের এই ক্রান্তিলগ্নে খাদ্যসামগ্রী না পেলে অসহায় মানুষগুলো খাদ্য সংকটে থাকতো। এই কারণে আমার নিজস্ব তহবিল থেকে আমি এসব সাহায্য সহযোগীতা করে যাচ্ছি। এসব কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ