জান্তার নির্দেশ উপেক্ষা, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বিক্ষোভকারীরা

প্রকাশিত: ৯:০৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২১

জান্তার নির্দেশ উপেক্ষা, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে বিক্ষোভকারীরা

অনলাইন ডেস্ক

মিয়ানমারে সামরিক জান্তার নেতার নির্দেশনা উপেক্ষা করে গৃহবন্দি এনএলডি নেতা অং সান সু চির সমর্থকদের বিক্ষোভ করেছেন। এতে পুলিশ বাধা দিয়ে বিক্ষোভকারীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে অন্তত ৩ জন আহত হয়েছে। খবর-রয়টার্সের।

শুক্রবার সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভের সময় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে মিয়ানমারে ক্ষমতার দখল নেয় সেনাবাহিনী। আটক করে নেত্রী সু চিকে, জারি করে একবছরের জরুরি অবস্থা। এরপর থেকেই জান্তার বিরুদ্ধে জনরোষ বড় ধরনের বিক্ষোভে রূপ নিয়েছে।

গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে সংকল্পবদ্ধ হয়ে টানা ষষ্ঠদিনের মতো বৃহস্পতিবার মিয়ানমারজুড়ে মানুষ বিক্ষোভ করেছে। এদিন সামরিক জান্তা নেতা জেনারেল মিন অং হ্লাইং প্রথম জনসম্মুখে এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বিক্ষোভের অবসান ঘটিয়ে সরকারি চাকরিজীবীদের অবিলম্বে কাজে ফেরার আহ্বান জানান।

মিয়ানমার রেড ক্রসের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় শহর মাওলামাইনে লক্ষাধিক মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেয়। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়লে তিনজন আহত হন।

কিয়াও মিন্ট নামের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে-এদের মধ্যে এক নারী তার গর্ভাশয়ে, এক পুরুষ তার গলায় এবং আরেক পুরুষ বাহুতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এর আগে বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছুড়েছিল। এখনও লোকসমাগম বেড়ে চলছে।’

দেশের সবচেয়ে বড় শহর ইয়াঙ্গুনে শতাধিক চিকিৎসক সাদা অ্যাপ্রোন পরে মিছিল করেছেন। নগরীর আরেক প্রান্তে ফুটবল সমর্থকরা জার্সি পরে হাতে ব্যাঙ্গাত্মক প্ল্যাকার্ড নিয়ে মিছিল করেছে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ