জাফলংয়ে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান হত্যা মামলার ৫ আসামি কারাগারে

প্রকাশিত: ৫:৫২ অপরাহ্ণ, মার্চ ৮, ২০২১

জাফলংয়ে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান হত্যা মামলার ৫ আসামি কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক :: সিলেটের জাফলংয়ের মুক্তিযুদ্ধা সন্তান শফিকুল ইসলাম হত্যা মামলার ৫ আসামিকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। রোববার (৭ মার্চ) সিলেটের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

আসামিরা হচ্ছে- জাফলং নয়াবস্তি গ্রামের ইনসান আলীর ছেলে রেজওয়ান আহমদ এবং তার সহযোগী ইসহাক মিয়া, শাহীন মিয়া, সুমন মিয়া ও রিয়াজ মিয়া। আসামি রেজওয়ান আহমদের বিরুদ্ধে একাধিক হত্যা মামলা রয়েছে।

নিহত শফিকুল ইসলাম পশ্চিম জাফলং ইউনিয়নের লাবু গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা ইব্রাহিম আলীর ছেলে। তিনি পশ্চিম জাফলং ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সাধারন সম্পাদক ছিলেন।

গত ১৮ জানুয়ারি রাতে জাফলংয়ের নয়াবস্তি এলাকায় পিয়াইন নদীর মধ্যবর্তী স্থানে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান শফিকুল ইসলামকে কুপিয়ে খুন করে লাশ নদীতে ফেলে দেয়। ঘটনার দুই দিন পর তার লাশ মিলে। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নয়াবস্তি গ্রামের আলীম উদ্দিন, রেজওয়ান সহ ১০ জন মিলে তাকে খুন করে।

ঘটনার পরদিন নিহতের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা ইব্রাহিম আলী বাদি হয়ে গোয়াইনঘাট থানায় আলীম উদ্দিনকে প্রধান আসামি করে মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার পর স্বপন বাগতি ও অমুল্য বাগতি নামের দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে, ৫ আসামি উচ্চ আদালতের জামিনে ছিলো। মেয়াদ শেষ হওয়ার পর রোববার রেজওয়ান, শাহীন, রিয়াজ, ইসহাক, সুমন জেলা জজ আদালতে হাজির হয়। শুনানি শেষে আদালত তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ