জুড়ীর এক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে সিলেটে মারা গেছেন

প্রকাশিত: ১১:০৬ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২০

জুড়ীর এক ব্যক্তি করোনার উপসর্গ নিয়ে সিলেটে মারা গেছেন

স্বপন দেব, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি :: করোনার উপসর্গ নিয়ে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন জুড়ীর এক ব্যক্তি। রোববার (১৪ জুন) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে মারা যাওয়া ওই ব্যক্তির নাম মাসুক মিয়া (৫৮)। তিনি জেলার জুড়ী উপজেলার ফুলতলা ইউনিয়নের কোনাগাঁও গ্রামের বাসিন্দা।

মৃত মাসুক মিয়ার পুত্র শিপলু জানান, শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে গত বুধবার (১০ জুন) দুপুরে তার বাবাকে নিয়ে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। কিন্তু তার রোগের বর্ণনা শুনে চিকিৎসকরা করোনা সন্দেহে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

বিকেলে ওসমানীতে আসার পর প্রথমে রোগী ভর্তি না করে শামসুদ্দিন হাসপাতালে যেতে বলা হয়। পরে জুড়ী হাসপাতালের চিকিৎসক ফোন করলে তাকে ওসমানীতে ভর্তি নেন। ৫দিন সেখানে চিকিৎসা চলে। আজ বুধবার বিকেলে আমাদের বলা হয় রোগীর করোনা নয়, হৃদরোগের সমস্যা। তাকে আইসিইউতে রাখতে হবে। ওসমানীতে আইসিইউ নেই, অন্য কোথাও নিয়ে যেতে। আমরা তাকে নর্থইস্ট হাসপাতালে নিয়ে যাবার প্রস্তুতি নেবার সময় তিনি মারা যান।

জানা যায়, মাসুক মিয়া প্রায় ৩৫-৪০ বছর থেকে ঢাকার মোহাম্মদপুরে বসবাস করছেন। সেখানে এক মালিকের কয়েকটি ভবনের কেয়ারটেকার হিসেবে চাকরি করতেন। তিনি গত প্রায় ৪ বছর থেকে ডায়বেটিস, বুকেপিটে ব্যথা ও শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। এক মাস আগে তার জ্বর, কাশি দেখা দেয়।

তিনি করোনা সন্দেহে ঢাকার কয়েকটি সেন্টারে নমুনা পরীক্ষার জন্য গেলে ৪-৫ ঘন্টা লাইনে থেকেও সিরিয়াল পাননি। এভাবে ৫-৬ দিন গিয়ে ফেরৎ আসেন। এক পর্যায়ে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। খাবার খেতে পারছিলেন না। গত মঙ্গলবার সকালে তিনি বাড়িতে চলে আসেন। রাতে তার অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় বুধবার দুপুরে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ