টিকটকের বিরুদ্ধে মামলা, ১২ হাজার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি

প্রকাশিত: ১০:৩২ অপরাহ্ণ, জুন ৪, ২০২১

টিকটকের বিরুদ্ধে মামলা, ১২ হাজার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দাবি

অনলাইন ডেস্ক :: টিকটকের বিরুদ্ধে মামলা করেছে নেদারল্যান্ডসের একটি অভিভাবক গোষ্ঠী। চীনের তৈরিকৃত এই অ্যাপ শিশুদের ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে অভিযোগ করে টিকটকের কাছে তারা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছে।

জার্মানভিত্তিক গণমাধ্যম ডয়চে ভেলের খবরে বলা হয়েছে, টিকটক শিশুদের গোপনীয়তা এবং নিরাপত্তা রক্ষায় যথেষ্ট উদ্যোগী নয় অভিযোগ করে ওই অভিভাবক গোষ্ঠী মামলা করেছে।

নেদারল্যান্ডসের ‘দ্য মার্কেট ইনফরমেশন রিসার্স ফাউন্ডেশন (এসওএমআই) নামে একটি সংস্থা জানিয়েছে, টিকটক শিশুদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় আমস্টারডামের আদালতে তারা অ্যাপটির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের অধিকার রক্ষায় কাজ করা সংস্থাটি দাবি করেছে, যথাযথ অনুমতি ছাড়াই টিকটক শিশুদের থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছে। সংস্থাটির আইনজীবী ডিউ লিন্ডারস স্থানীয় একটি গণমাধ্যমকে বলেন, টিকটক শিশুদের থেকে প্রয়োজনের অতিরিক্ত তথ্য সংগ্রহ করে। এটা স্পষ্ট নয়, টিকটক কিভাবে ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহার করে। উদাহরণ হিসেবে তিনি শিশুদের কাছে বিজ্ঞাপন আসা এবং তথ্য যুক্তরাষ্ট্র ও চীনে পাচারের আশঙ্কার কথা বলেন।

১৬ বছরের কম বয়সের একজন শিশু অভিভাবকের অনুমতি ছাড়াই টিকটক অ্যাকাউন্ট খুলতে পারে উল্লেখ করে নেদারল্যান্ডসের এই আইনজীবী বলেন, টিকটকে ভয়ংকর সব চ্যালেঞ্জে উৎসাহী হয়ে বিশ্বব্যাপী অনেক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তিনি ব্লাকআউট চ্যালেঞ্জের কথা বলেন যেটা হলো, জ্ঞান হারানোর আগ পর্যন্ত দম বন্ধ রাখা। এই চ্যালেঞ্জে মৃত্যু না হলেও শিশুরা মানসিক এবং শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলে উল্লেখ করেন তিনি।

তবে টিকটক দাবি করেছে, শিশুদের রক্ষায় তারা ব্যাপক তৎপর। ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সীদের অ্যাকাউন্ট স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ‘প্রাইভেট রাখার কথা উল্লেখ করে কর্তৃপক্ষ বলেছে, অচেনা কেউ শিশুদের ভিডিও দেখতে পারে না। এছাড়া টিকটকের মডারেটররা অনুপযুক্ত ভিডিও সরিয়ে ফেলেন এবং আপত্তিকর ভিডিও নির্মাতাদের অ্যাকাউন্ট স্থগিত করে দেন।

টিকটকের মালিক চীনের ইন্টারনেট কোম্পানি বাইটড্যান্স। বিশ্বব্যাপী অ্যাপটির ব্যবহারকারীর সংখ্যা প্রায় ৭০ কোটি। বিভিন্ন গণমাধ্যম নিউজ প্রচারেও এখন টিকটক ব্যবহার করছে।

আমাদের ফেইসবুক পেইজ