ট্রাম্পকে পাঠানো চিঠিতে মারাত্মক বিষ

প্রকাশিত: ৩:৩১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২০

ট্রাম্পকে পাঠানো চিঠিতে মারাত্মক বিষ

 

অনলাইন ডেস্ক
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে পাঠানো একটি চিঠিতে রাইসিন নামক একটি মারাত্মক বিষ মেশানো ছিল।

হোয়াইট হাউসে পৌঁছানোর আগেই এটি জব্দ করা হয়। প্রেসিডেন্টের ঠিকানায় পাঠানো যে কোনো চিঠি তার কাছে পৌঁছানোর আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার একটি আলাদা কার্যালয় রয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সেখানেই বিষয়টি ধরা পড়ে। খবর ডেইলি মেইল ও বিবিসির।

খামের ভেতরে চিঠিতে রাইসিন নামক একটি মারাত্মক বিষাক্ত পদার্থ মেশানো ছিল। ক্যাস্টর অয়েল তৈরি হয় যে বীজ থেকে, সেই একই বীজ থেকেই তৈরি এ রাইসিন বিষ।

যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি বলছে, রাইসিন এতটাই বিষাক্ত যে, মাত্র কয়েক ফোটা লবণ দানার সমপরিমাণ রাইসিন একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে পারে।

রাইসিন কোনোভাবে খেয়ে ফেললে, নিঃশ্বাসের সঙ্গে অথবা ইনজেকশনের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করলে মাথা ঘোরা ও বমি শুরু হয়। এর পর শরীরের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ বিকল হতে থাকে। ৩৬ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মানুষের মৃত্যু হয়। এর বিষক্রিয়া প্রতিরোধে কোনো প্রতিষেধক নেই।

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই এবং প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিক্রেট সার্ভিস এখন তদন্ত করে দেখছে যে, এই চিঠি কোত্থেকে পাঠানো হয়েছে।

অন্য আরও কাউকে একই ধরনের চিঠি পাঠানো হয়েছে কিনা সেটিও তদন্ত করছে সংস্থা দুটি। তবে এফবিআই জানিয়েছে, আপাতত আর কোনো ধরনের ঝুঁকি তারা দেখছেন না।

চিঠিটি কানাডা থেকে পাঠানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। শনিবার কানাডিয়ান পুলিশ জানিয়েছে যে, বিষয়টি তদন্তে তারা এফবিআইয়ের সঙ্গে কাজ করছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এর আগেও হোয়াইট হাউসে রাইসিন মেশানো চিঠি পাঠানোর ঘটনা ঘটেছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও অন্য কয়েকজন কর্মকর্তাকে রাইসিনের গুঁড়ো মেশানো চিঠি পাঠানোর দায়ে ২০১৪ সালে মিসিসিপির এক ব্যক্তিকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ