তাইজুলের বোলিং অ্যাকশনে ভেট্টোরির ছায়া

প্রকাশিত: ৩:৩৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০

তাইজুলের বোলিং অ্যাকশনে ভেট্টোরির ছায়া

 

অনলাইন ডেস্ক :: লম্বা বিরতির পর যখন শুরু হল ক্রিকেটারদের স্কিল ট্রেনিং, নেটে তাইজুল ইসলামকে দেখে চমকে গেলেন অনেকেই। অনেকটাই বদলে গেছে তার বোলিং অ্যাকশন! নতুন অ্যাকশনে দেখা গেল ড্যানিয়েল ভেট্টোরির ছায়া।

বিশেষ করে ডেলিভারি স্ট্রাইডে যেন হুবহু ভেট্টোরি! নতুন এই অ্যাকশনে এখন অনেকটাই মানিয়ে নিয়েছেন বলে জানালেন তাইজুল। তাইজুলের নতুন অ্যাকশনের নেপথ্য কারিগরও ভেট্টোরি। বাংলাদেশের স্পিন পরামর্শক এই কিউই গ্রেটের পরামর্শেই নিজেকে ভেঙে নতুনভাবে সাজানোর চেষ্টা করছেন তাইজুল।

টেস্টে বাংলাদেশের দ্রুততম ১০০ উইকেট শিকারি তিনি, এই সংস্করণে দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশও। কিন্তু নিয়মিত নন অন্য দুই সংস্করণে। এবার অবশ্য অনেকটা চমক দিয়েই বিসিবি তাকে রেখেছে লাল-সাদা দুই বলের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে। তাইজুলও তাই নিজেকে তৈরি করতে চান সেই দাবি মেটানোর জন্য।

গত মার্চে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তাইজুল বলেছিলেন, সব সংস্করণে ভালো করার টনিক তিনি পেয়েছেন ভেট্টোরির কাছ থেকে। কিছু ‘ফাইন টিউন’ করার কথা বলেছিলেন তখন। তবে পরে দেখা গেল, টুকটাক কোনো বদল নয়, নিজের সহজাত অ্যাকশনই বদলে ফেলেছেন অনেকটা। এত বছর ধরে চালিয়ে আশা অ্যাকশন বদলে ফেলাটা সহজ নয় মোটেও।

তবে মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনের পর তাইজুল জানালেন, অনেক ঘাম ঝরিয়ে এখন তিনি নতুন অ্যাকশনে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছেন। ‘তিন-চার মাস পর মাঠে ফিরে আসা কঠিন। তারপরও বোর্ড যে সুযোগ-সুবিধা দিয়েছে, আমরা দুই মাসের মতো প্র্যাকটিস করলাম। ব্যক্তিগতভাবে আমি বোলিং নিয়ে কাজ করেছি। ভেট্টোরির সঙ্গে কথা বলেছি আমার বোলিং নিয়ে, মাঝখানে অ্যাকশন বদলেছি। অ্যাকশন নিয়ে কাজ করেছি। শরীরের সঙ্গে এখন অ্যাকশন মানিয়ে গেছে।’

তিনি যোগ করেন, ‘এখন টানা দুই ঘণ্টা বোলিং করতেও সমস্যা হচ্ছে না। আমাদের ব্যক্তিগত অনুশীলন যখন ছিল, তখন যে সুবিধাটা হয়েছে, যার যার কাজগুলো নিজের মতো করে করতে পেরেছি। সপ্তাহদুয়েক হল ব্যাটসম্যানদের বোলিং করছি নেটে। আত্মবিশ্বাস বাড়তে শুরু করেছে, আরও কিছুদিন গেলে আরও বাড়বে আশা করি।’

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ