তাহিরপুরে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে বস্তাবন্দি করে নদীতে ফেলার চেষ্টা স্বামীর

প্রকাশিত: ৬:০৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ৩১, ২০২১

তাহিরপুরে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে বস্তাবন্দি করে নদীতে ফেলার চেষ্টা স্বামীর

তাহিরপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে হাত-পা বেঁধে বস্তাবন্দি করে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নদীতে ফেলে যাওয়ার চেষ্টা করেন স্বামী ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনাটি টের পান তাদের এক প্রতিবেশী। পরে সেই প্রতিবেশীর চিৎকারে ছুটে আসেন অন্যরা। গৃহবধূকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাত ৮টার দিকে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট উত্তর ইউনিয়নের বোলাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

গৃহবধূ মাইফুল নেছার মা মমতা বেগম জানান, মাইফুল নেছার (২৩) সঙ্গে দোয়ারাবাজার উপজেলার চৌধুরীপাড়া গ্রামের সাজিদুল মিয়ার ছেলে আবু তাহের জান্নাতের (২৮) পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর আবু তাহের স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ির পাশে ভোলাখালি গ্রামে বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করছিলেন। পাশাপাশি পাশেই একটি ঘরে পোল্ট্রি মুরগির ব্যবসা শুরু করেন। কয়েক মাস ধরে মাইফুলকে যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দিচ্ছিল আবু তাহের। কিন্তু টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে শারীরিক নির্যাতন শুরু করেন।

মাইফুল নেছার দুলা ভাই আশু মিয়া (২৫) ও বড় ভাই ওবায়দুল্লাহ জানান, বিয়ের পর থেকেই তারা আমার বোনকে নির্যাতন করছিল। যৌতুকের ৫০ হাজার টাকার দাবি মেটানোর পরও নির্যাতন বন্ধ করেনি। আজ হাত-পা বেঁধে আমার বোনকে নদীতে ভাসিয়ে দিতে চেয়েছিল। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত আবু তাহের জান্নাত ও তার সহযোগীরা পলাতক রয়েছে।

বাদাঘাট পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ