তৃণমূলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানালেন এড.নাসির উদ্দিন খান (ভিডিও)

প্রকাশিত: ২:২১ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৯, ২০২১

তৃণমূলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানালেন এড.নাসির উদ্দিন খান (ভিডিও)

সিলেটে ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগে উৎসবের আমেজ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :: সিলেট–৩ আসনে উপ নির্বাচনে হাবিবুর রহমান হাবিবের বিজয় নিশ্চিত করতে আওয়ামী লীগ ও সহযোগীসংগঠনের নেতা–কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।কারন হল এই আসনের দুইশক্তিশালী প্রাথীকে পরাজিত করতে হলে ঐক্যের কোন বিকল্প নেই।সিলেট-৩ আসনের তৃণমুল আওয়ামীলীগের কর্মীরা হল আমাদের মুল শক্তি । আমি তাদের ঐক্য দেখে অভিভুত।

শুক্রবার (১৮ জুন ) দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কথাগুলো বলেন।

উপ-নির্বাচনকে ঘিরে সরব হয়ে উঠেছে সিলেট আওয়ামী লীগ। দলীয় প্রার্থীর পক্ষে সিলেটে সৃষ্টি হয়েছে আওয়ামী জোয়ার। এই জোয়ারে বিভাজন ভুলে এককাতারে সামিল হয়েছেন সবাই। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে অনেকদিন পর দলীয় প্রাণচাঞ্চল্যে উৎফুল্ল তৃণমূলের কর্মীরা। মোট কথা, সিলেট-৩ আসনের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে সিলেট আওয়ামী পরিবারে।

সিলেট-৩ আসনের আসন্ন উপনির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ২৫ জন প্রার্থী। ১২ জুন মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় যাছাই-বাছাই শেষে হাবিবুর রহমান হাবিবকে মনোনয়ন প্রদান করা হয়। যোগ্যতা থাকলেও তালিকা থেকে বাদ পড়েন বাকি ২৪ জন। এ নিয়ে সিলেটে শুরু হয়েছিল গুঞ্জন।

সবার ধারনা ছিল ফের দলীয় কোন্দলে বিপর্যস্থ হতে পারে আওয়ামী লীগ। কিন্তু গুজব উড়িয়ে দিয়ে দলীয় নেতারা প্রমাণ করেছেন আওয়ামী লীগ গ্রুপিং রাজনীতিতে বিশ্বাসী নয়। দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্তির পর ১৪ জুন সিলেট ফিরেন দলীয় প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব। সেদিন বিমান বন্দরে স্বাগত জানাতে উপস্থিত থাকেন জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ ছাড়াও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বিশাল নেতাকর্মী নিয়ে বিমানবন্দর থেকে সরাসরি নির্বাচনী এলাকা দক্ষিণ সুরমার চন্ডিপুলে সমবেত হন হাবিবুর রহমান হাবিব।

সেখানে তিনি মনোনয়ন প্রত্যাশী সকল নেতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন একই সাথে ২৮ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিজয় সুনিশ্চিত করার লক্ষে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন। একই সাথে তিনি ওই দিন হযরত শাহজালাল (র.) ও হযরত শাহপরাণ (র.) এর মাজার জেয়ারত শেষে বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগে ব্যস্থ সময় কাটান।

১৬ জুন জেলা রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়ন পত্র জমা দেন হাবিবুর রহমান হাবিব। এ সময় জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের পাশপাশি সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন। পরদিন ১৭ জুন হাবিবুর রহমান সিলেটে কর্মরত গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে একটি হোটেলের কনফারেন্স হলে মত বিনিময়ে মিলিত হন।

মত বিনিময় সভায় দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। একই সাথে তিনটি উপজেলার সংগঠনের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতি দলে এনে দেয় বাড়তি উচ্ছ্বাস। ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ এডভোকেট লুৎফুর রহমান। জেলা সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানের সঞ্চালনায় প্রানবন্ত এই অনুষ্ঠানে সকল বক্তারা দলীয় প্রতীক এবং উন্নয়নের প্রতীক নৌকার বিজয় সুনিশ্চিতের লক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

শুক্রবার (১৮ জুন ) দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সিলেট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেট-৩ আসনে উপ-নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিবকে মনোনয়ন দিয়েছেন।

আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মনোনিত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবকে নির্বাচিত করা। এজন্য আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতা-কর্মীদের ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হাবিবুর রহমান হাবিবের পক্ষে সমর্থন আদায় করতে হবে। তিনি সুষ্ট-সুন্দর নির্বাচনী পরিবেশ বজায় রেখে আগামী ২৮ জুলাই ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে আসার সুযোগ করে দিতে দলীয় নেতা কর্মীদের সচেষ্ট থাকার আহবান জানান।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ এডভোকেট শামীম আহমদের পরিচালনায় সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দীন খান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সিলেট-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী ও সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির উদ্দিন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আজমল আলী, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রঞ্জিত সরকার, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সালেহ আহমদ হীরা, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক আ.স.ম মিসবাহ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মতিউর রহমান মতি, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ শমশের জামাল, এম,সি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুক্তরাজ্য প্রবাসী সেলিম আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাকুর রহমান মফুর, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, সদস্য শহিদুর রহমান শাহীন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাজ্জাক হোসেন, নজরুল ইসলাম কামাল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কামাল উদ্দিন রাসেল, সদস্য ফজলুল করিম হেলাল, ফখরুল ইসলাম সাইস্তা।

এছাড়া ব্ক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, লালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি বুলবুল আহমদ, সাধারণ সম্পাদক মুহিত হোসেন, জালালপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল মালিক মলিক, সাধারণ সম্পাদক ওয়েছ আহমদ, কামালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, দাউদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আতিকুল হক, মোগলাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সানর মিয়া, সিলাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক আতিকুর রহমান, কুচাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রহমান আনা, সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেন, তেঁতলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছিত রানা, মোল্লারগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জবরুল ইসলাম জগলু, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক নুরুল ইসলাম, যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল কাদির সাদেক, সাধারণ সস্পাদক সারোয়ার আলম মিতুন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো.ছদরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান সানী, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুস সালাম, রাজ্জাক হোসেন, নজরুল ইসলাম কামাল, মাসুক উদ্দিন,আব্দুল মতিন, কামাল উদ্দিন রাসেল, জামাল আহমেদ, কামাল আহমেদ, ফজলুল করিম হেলাল, খিজির খান, আব্দুল আহাদ, তাহসিন আহমেদ দীপু, রফিকুল হক, পংকি মিয়া, বশির মিয়া, বুরহান উদ্দিন,আজাদ মিয়া,তপন চন্দ্র পাল, শাহ-আলম প্রমুখ।

সভায় উপজেলা আওয়ামীলীগ, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

আমাদের ফেইসবুক পেইজ