দক্ষিণ সুনামগঞ্জে প্রতিনিয়ত বাড়ছে নদী ভাঙন

প্রকাশিত: ৬:১৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০২০

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে প্রতিনিয়ত বাড়ছে নদী ভাঙন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: দক্ষিণ সুনামগঞ্জে টানা বৃষ্টি আর ভারত থেকে নেমে আসা ঢলে ৩ দফা বন্যায় তীব্র হচ্ছে নদী ভাঙন। বিভিন্ন স্থানে নদী কেড়ে নিচ্ছে মানুষের আশ্রয়স্থল। নদীগর্ভে ঘর-বাড়ি, গাছগাছালি, সব হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছেন মানুষ। ভাঙন কবলিত নিঃস্ব মানুষের বুক ফাটা আহাজারি শোনার কেউ নেই। তাদের দুঃখ-দুদর্শা দেখার কেউ নেই। সবকিছু হারিয়ে এখন সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন ক্ষতিগ্রস্ত সহ এলাকাবাসী।

নদী ভাঙনের তান্ডবে নাইন্দা তীরবর্তী সদরপুর গ্রামের বজলুমিয়া ও তার ভাইয়েরাসহ নি:স্ব হচ্ছেন অনেকেই। প্রতিনিতই অব্যাহত রয়েছে নদী ভাঙন। নদী ভাঙ্গনে তাদের ৪ বিগা জমি ভাঙতে ভাঙতে এখন আর সামান্য জায়গা রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ছেলেমেয়া, ও গবাদিপশু নিয়ে মারাত্মক চিন্তায় রয়েছেন তারা৷

কথা হলে নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত বজলু মিয়া বলেন, নদীর ভাঙনে ভাঙতে ভাঙতে আর সামান্য জায়গা আছে। যেভাবে ভাঙন চলের এই জায়গাটাও হয়ত থাকবে না। আমরা সরকারের সহায়তা চাই।

মনোয়ারা বেগম নামের আরেকজন বলেন, নদী ভাঙনে আমাদের সব শেষ। ছেলে মেয়ে নিয়ে খুব কষ্টে আছি।

এলাকার আরেক বাসিন্দা মজনু মিয়া বলেন, শুধু বজলু মিয়াই নয় নদী ভাঙনের স্বীকার সদরপুর গ্রামের শতশত পরিবার৷ তাই সরকারের কাছে অনুরোধ নদী ভাঙন রোধে দ্রুত যেন কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

এ ব্যাপারে জয়কলস ইউপি চেয়ারম্যান মাসুদ মিয়া বলেন, আমার ইউনিয়নের নাইন্দা তীরবর্তী সদরপুর গ্রামের মানুষ খুব কষ্টে আছে। আমি পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের কাছে অনুরোধ করছি আমার ইউনিয়নের এই ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়ানোর জন্য।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফারুক আল মামুন বলেন, আমি ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশল(পওর-২) স্যারের সাথে বিস্তর আলোচনা হয়েছে। দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ