দিরাইয়ে পারিবারিক ঝগড়াকে আদালতে নিলেন প্রবাসী, আসামী হলেন সালিশকারীরা

প্রকাশিত: ৬:২৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০

দিরাইয়ে পারিবারিক ঝগড়াকে আদালতে নিলেন প্রবাসী, আসামী হলেন সালিশকারীরা

জাকারিয়া হোসেন জোসেফ ,দিরাই :

সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের কালধর গ্রামে গত ৩০ আগষ্ট এক লন্ডন প্রবাসী বাড়ী লুটপাটের ঘটনা উদ্দেশ্যে প্রণোদিত। লন্ডন প্রবাসী মীর হোসাইনের বাড়ীতে গিয়ে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় এই বাড়ীটি তাহার একা নয় এখানে তার আপন ভাই ও বোনদের অংশ রহিয়াছে। লন্ডন প্রবাসী মীর হোসাইন যে সব জিনিস লুটপাট হইয়াছে উল্লেখ করে থানায় মামলা করিয়াছেন তাহার আত্মীয় স্বজন ও এলাকার গণ্যমান্য সালিশ ব্যাক্তিত্বদের উপর এদের উপস্থিতিতে আজ স্ব-স্ব স্থানে সকল জিনিস সংরক্ষিত রাখা আছে। এখানে তিনি এলাকার কিছু কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় পড়ে আত্মীয় স্বজন ও এলাকার সালিশ ব্যাক্তিদেরকে হয়রানি করার জন্য মিথ্যার আশ্রয় নিয়েছেন৷ আজ শনিবার বিকেল ৩ টায় গিয়ে লন্ডন প্রবাসী মীর হোসাইনের বাড়ীতে সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয় মানুষজনের সাথে আলাপ করলে এই ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাহাব উদ্দিন জানান, ঘটনার দিন আমি অন্য এক জায়গায় ছিলাম,। শুনতে পাই লন্ডন প্রবাসী মীর হোসাইনের ধানের ঘর থেকে তার পকেটের লোকজন ধান বিক্রয় করতেছে। এসে তাদেরকে জিজ্ঞেস করলে উনারা বলেন লন্ডনী সাহেবের হুকুম। অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় পর দিন শুনি লন্ডন প্রবাসী নাকি উনার আত্মীয় স্বজন ও এলাকার সালিস ব্যাক্তিদের উপর মামলা করিয়াছেন। এটা আসলেই উদ্দেশ্য প্রণোদিত। এটা এই পরিবারের জন্য অত্যন্ত কলংক জনক৷ সালিশ ব্যাক্তিত্ব মরম আলী জানান, মীর হোসাইনের কারণে দিনের পর দিন এই পরিবারটি অধঃপতনের দিকে ধাবিত হচ্ছে। আমরা দীর্ঘদিন যাবত এই মীর হোসাইনের অনেক সমস্যা সমাধান করিয়াছি। সে এখন কে? বা কাদের প্ররোচনায় পড়ে আমরা যারা সালিশ ব্যাক্তি ছিলাম আমাদের উপর দিরাই থানায় মামলা দায়ের করিয়াছে। আর মীর হোসাইন যে সব জিনিস লুটপাট হইয়াছে বলে থানায় মামলা করে মিথ্যা আশ্রয় নিয়েছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট। তাহার ট্রলি, ও পাওয়ার মিশিন, সহ ঘরের আসবাপত্র সব গুলো এখনো টিক আছে।

মীর হোসাইনের আপন বড় ভাইয়ের স্ত্রী জানান, আমার স্বামীর সহযোগিতায় উনি আজ লন্ডনে আছেন,। কিন্তু তিনি আমাদেকে এই বাড়ী থেকে তাড়িয়ে দেওয়া জন্য যে কত রকম যড়যন্ত্র করতেছেন প্রবাস থেকে ইন্ধন দিয়ে, তাহার পকেটের লোকজন দিয়ে।
এলাকার সচেতন মহলের দাবী মীর হোসাইন একজন দরবারী প্রকৃতি মানুষ। তিনি ঝগড়া বিবাদ একটা পর একটা না লাগিয়ে তার কোন কিছু ভালো লাগে না। এই মীর হোসাইনের শেল্টারে কিছু লোকজনের কারণে তার আপন ভাইয়ের পরিবার ও মহল্লাবাসী আতংকে আছেন। মীর হোসাইনের বাহিনী যে কোন সময় ঘটাতে পারে বড় ধরনের কোন দূর্ঘটনা। এ থেকে মুক্তি পেতে কালধর গ্রামবাসী প্রশাসনের সাহায্য কামনা করেন।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ