দিরাইয়ে হাওর রক্ষা বাঁধ কেটে দেওয়ায় দূর্ভোগে ৩ গ্রামবাসী

প্রকাশিত: ৪:৪৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ৮, ২০২০

দিরাইয়ে হাওর রক্ষা বাঁধ কেটে দেওয়ায় দূর্ভোগে ৩ গ্রামবাসী

দিরাই প্রতিনিধি :: দিরাই উপজেলার তাড়ল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক এক সদস্যের বিরুদ্ধে নিজ স্বার্থে উপজেলার বরাম হাওরের রনভূমি হতে কাদির পুর পর্যন্ত হাওর রক্ষা বাঁধের কিছু অংশ কেটে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।তাড়ল ইউনিয়নের রনভূমি গ্রামের বাসিন্দা, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে রনভূমি, জালাল পুর ও তাড়ল গ্রামের অর্ধশত বিভিন্ন শ্রেণি পেশার জনগণ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর বাঁধ কেটে দেওয়ায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে রনভূমি গ্রামের বাসিন্দা যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা শফিক চৌধুরী বলেন, রনভূমি হতে কাদির পুর পর্যন্ত বেরিবাঁধ তৈরি হওয়ায় আমাদের গ্রাম এবং পার্শ্ববতী তাড়ল ও জালাল পুর গ্রামের লোকজন, হেমন্তে এমনকি বর্ষায়, ওই রাস্তা দিয়ে পায়ে হেঁটে চলাফেরা করতে পারেন। গত কয়েকদিন আগে আব্দুস সালাম ও তার লোকজন রনভূমি মাদ্রাসার উত্তর-পশ্চিম পাশ্বর্বর্তী বেড়িবাঁধের কিছু অংশ নিজ বাড়িতে নৌকা যাতায়াতের স্বার্থে কেটে দেয়। গ্রামবাসী নিষেধ করলেও মেম্বার ও তার লোকজন পাত্তাই দেয়নি। এতে তিনগ্রামবাসীকে দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এ দূর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতে আমরা তিন গ্রামবাসী মিলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে সালাম মেম্বার ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছি, যা তদন্তাধীন রয়েছে। সালাম মেম্বার গত পরশু আমাদের অভিযোগ দাখিলের খবর পেয়ে নিজেকে রক্ষা করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সফি উল্লাহ দুইটি অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন তদন্তপূর্বক সত্য মিথ্যা যাচাই করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ