দিল্লিতে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৫ লাখ হবে

প্রকাশিত: ৬:৪৮ অপরাহ্ণ, জুন ৯, ২০২০

দিল্লিতে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৫ লাখ হবে

অনলাইন ডেস্ক :: সংক্রমণের বর্তমান দ্বিগুণ হারের ভিত্তিতে দিল্লিতে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৫ লাখ হবে বলে জানিয়েছেন দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া। খবর-এনডিটিভির।

মঙ্গলবার উপ-রাজ্যপাল অনিল বৈজাল ও ঊর্ধ্বতন কেন্দ্রীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

তিনি বলেন, দিল্লিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতি ১২-১৩ দিন অন্তর অন্তর দ্বিগুণ হচ্ছে। ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে দিল্লিতে সাড়ে ৫ লাখ কোভিড-১৯ সংক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে। তখন আমাদের ৮০ হাজার শয্যা লাগবে।

দিল্লি সরকারের অনুমান, ১৫ জুনের মধ্যে ৪৪ হাজার, ৩০ জুনের মধ্যে এক লাখ ও ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে আড়াই লাখ সংক্রমণ হবে।

এর আগে সোমবার দিল্লি সরকারের শহরের বাসিন্দাদের জন্য শয্যা সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত বাতিল করে দেন উপ-রাজ্যপাল। আগামীতে হাসপাতালের শয্যার বিশাল চাহিদার আশঙ্কা করছেন মণীশ সিসোদিয়া।

সামনের সপ্তাহগুলোতে দিল্লিতে চরম হারে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়বে এমন আশঙ্কা করে মণীশ সিসোদিয়া বলেন, দিল্লির সব হাসপাতালের শয্যার ৫০ শতাংশই সাধারণত বাইরে থেকে চিকিত্সার জন্য আসা ব্যক্তিদের দখলে ছিল।

তিনি বলেন, এখন আমরা দেখতে পাচ্ছি জুলাইয়ের শেষে ৮০ হাজার শয্যা লাগবে শুধু দিল্লির বাসিন্দাদের জন্য, বাইরের লোকদের জন্য নয়…এগুলো কোথা থেকে আসবে? এ নিয়ে কী করা হচ্ছে?

মণীশ সিসোদিয়া সাংবাদিকদের আরও বলেন যে কেন্দ্রীয় কর্মকর্তাদের মতে, দিল্লি কমিউনিটি সংক্রমণের পর্যায়ে ছিল না। শহরের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন বলেন, দিল্লিতে অর্ধেক ভাইরাস সংক্রমণের ঘটনার কোনো উৎসই খুঁজে পাওয়া যায়নি। এই ঘটনাকে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হিসেবে দেখা যেতে পারে কিনা জানতে চাওয়া হলে সত্যেন্দ্র জৈন বলেন, কেন্দ্র এটা ঘোষণা না করলে নয়।

সংবাদ অনুসন্ধান ক্যালেন্ডার

MonTueWedThuFriSatSun

আমাদের ফেইসবুক পেইজ